করোনা

কলকাতা:  প্রতিদিনই রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য ভবন থেকে একটি বুলেটিন প্রকাশ করা হয়৷ সেখানে উল্লেখ করা হয় কোন জেলায় কতজন আক্রান্ত ও মৃত৷ এছাড়া কতজন সুস্থ হয়ে উঠেছেন সেই তথ্যও তুলে ধরা হয়৷

সোমবারের রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী, দেখে নেওয়া যাক কোন জেলায় কতজন আক্রান্ত আর কতজনেরই বা মৃত্যু হয়েছে৷ কতজন সুস্থ হয়ে উঠেছেন৷

উত্তর ২৪ পরগনা- একদিনে আক্রান্ত ৪৯২ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ২১ হাজার ৪৭ জন৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬০৪ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১৪,৯০৭ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের৷ ফলে মোট মৃতের সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়াল ৪৯০ জনে৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৫,৬৫০ জন৷

হাওড়া- একদিনে আক্রান্ত ২০৯ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৯,৯৪৪ জন৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৬৯ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৭,৬২৪ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের৷ ফলে মোট মৃতের সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়াল ২৫৩ জনে৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ২,০৬৭ জন৷

হুগলি – একদিনে আক্রান্ত ১১২ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৪,৬৯৫ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৯ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৩,৩২৮ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় ১ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ মোট মৃতের সংখ্যা ৭৩ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ১,২৯৪ জন৷

দক্ষিণ ২৪ পরগনা-একদিনে আক্রান্ত ১৯৫ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৭,১৮৯ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৪৭ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৫,১৯৭ জন৷ একদিনে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১১৭ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ১,৮৭৫ জন৷

পশ্চিম বর্ধমান- একদিনে আক্রান্ত ৭৬ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৭৩৯ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৫ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৯৩৩ জন৷ নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৪ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৭৯২ জন৷

পূর্ব বর্ধমান- একদিনে আক্রান্ত ৫০ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৫৪২ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৫ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১,০২৫ জন৷ একদিনে এক জনের মৃত্যু হয়েছে৷ মোট মৃতের সংখ্যা ৮ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৫০৯ জন৷

পূর্ব মেদিনীপুর- একদিনে আক্রান্ত ২১৮ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ২,৭৬৯ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৯ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১,৫৩৮ জন৷ একজনের মৃত্যু হয়েছে৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৯ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১,২১২ জন৷

পশ্চিম মেদিনীপুর- একদিনে আক্রান্ত ৭৭ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৫৯৭ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৯ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১,২৩৪ জন৷ একজনের মৃত্যু হয়েছে৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৯ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা কমে ৩৪৪ জন৷

ঝাড়গ্রাম- একদিনে আক্রান্ত ৫ জন৷ মোট আক্রান্ত ৮৪ জন৷ এই জেলায় এখনও পর্যন্ত কারও মৃত্যু হয়নি৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৩৮ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬ জন৷

বাঁকুড়া- একদিনে আক্রান্ত ৫৪ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,১০৩ জন৷ এই জেলায় এখনও পর্যন্ত কারও মৃত্যু হয়নি৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫০ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৮১০ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে হয়েছে ২৯৩ জন৷

পুরুলিয়া- একদিনে আক্রান্ত ৪৬ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৩৯১ জন৷ এই জেলায় এখনও পর্যন্ত কারও মৃত্যু হয়নি৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২১ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ২৬৩ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ১২৮ জন৷

বীরভূম- একদিনে আক্রান্ত ৭১ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,০৪১ জন৷ এই জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় কারও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা ৭ জন৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৪ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৫৮৯ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে ৪৪৫ জন৷

নদীয়া- একদিনে আক্রান্ত ৪৪ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৬৮৭ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৮ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১,০৮১ জন৷ একদিনে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৭ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে ৫৮৯ জন৷

মুর্শিদাবাদ- একদিনে আক্রান্ত ৭৩ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৪১০ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৬ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৯১০ জন৷ একদিনে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৭ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে ৪৮৩ জন৷

মালদহ- একদিনে আক্রান্ত ১১২ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৩,১৭০ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৪১ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ২,৪৭৩ জন৷ নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৭ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৬৮০ জন৷

দক্ষিণ দিনাজপুর- একদিনে আক্রান্ত ৪৮ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৮৫৪ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৩৫ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১,৩১৫ জন৷ একদিনে ১ জনেরও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৩ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৫২৬ জন৷

উত্তর দিনাজপুর- একদিনে আক্রান্ত ৪০ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৩৯৬ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১০ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১,১৩২ জন৷ নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৩ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা কমে হয়েছে ২৫১ জন৷

জলপাইগুড়ি- একদিনে আক্রান্ত ৫১ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৮৩০ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৭ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ১,৩৭৩ জন৷ নতুন করে এক জনেরও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা ১৪ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে ৪৪৩ জন৷

কালিম্পং- একদিনে ৪৭ জন আক্রান্ত৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১৮০ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় এক জনের মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা মাত্র ১ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৯৪ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫ জন৷

দার্জিলিং- একদিনে আক্রান্ত ১৩৩ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৩,১১০ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৯২ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ২,৩০৪ জন৷ নতুন করে কারও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা ৩৯ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৭৬৭ জন৷

কোচবিহার- একদিনে আক্রান্ত ৪৫ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১,৪১২ জন৷ এই জেলায় এখনও পর্যন্ত কারও মৃত্যু হয়নি৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেল ১৩৭ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৯৬২ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৪৫০ জন৷

আলিপুরদুয়ার- একদিনে আক্রান্ত ৮৯ জন৷ এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৭২৯ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় এক জনেরও মৃত্যু হয়নি৷ মোট মৃতের সংখ্যা মাত্র ৪ জন৷ একদিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৯ জন৷ মোট সুস্থ হয়েছেন ৪২২ জন৷ অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৩০৩ জন৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।