ফাইল ছবি

হাওড়াঃ  বেলুড়ের অম্বিকা জুটমিলের ওয়ার্কশপের গোডাউনের ফার্স্ট ফ্লোরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল। শনিবার সকালে এই ঘটনায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয় জুটমিল চত্বরে। ঘটনাস্থলে আসে দমকলের ৬টি ইঞ্জিন। প্রায় আড়াই ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এই ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও কয়েক লক্ষ টাকার জিনিসপত্র ক্ষয়ক্ষতি হয়।

মিলের শ্রমিকরা জানান, এদিন সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ তাঁরা গুদামে আগুন দেখতে পান। প্রথমে তারা নিজেদের অগ্নিনির্বাপন সিস্টেম দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেননি। খবর দেওয়া হয় দমকলে। দমকল সূত্রে জানা যায়, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে দমকলের ৬টি ইঞ্জিন।

জানা গিয়েছে, সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ আগুন লাগে। প্রায় আড়াই ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এই ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। ওই গোডাউনে ছিল কয়েক লক্ষ টাকার পাটজাত সামগ্রী। আগুনের ভয়াবহতা এতটাই ছিল আগুনে ভস্মীভূত হয়ে যায় সবকিছু। তবে কি কারণে আগুন লেগেছে তা এখনও জানা যায়নি। অনুমান করা হচ্ছে প্রচন্ড গরমে পাটে আগুন লেগে যায়। তা থেকেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। শ্রমিকদের অভিযোগ, খবর দেওয়ার পর দমকল অনেক দেরিতে এসে পৌঁছেছে। পর্যাপ্ত জল তারা নিয়ে আসেননি। দমকলের মই কাজ করছিল না।

তবে এই অভিযোগ দমকলের পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হয়েছে। তাদের দাবি, খবর পাওয়ার পরই দমকল কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসেন। ল্যাডারও সঠিকভাবে কাজ করেছে। না হলে প্রায় ১০ হাজার বর্গফুটের গুদোমের আগুন নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হত না। পর্যাপ্ত জলও আনা হয়েছিল। কিন্তু কারখানার অগ্নিনির্বাপনের জন্য জলের ব্যবস্থা সঠিক ছিল না।