নয়াদিল্লি: একজন মুসলিম হয়েও নিজেকে ‘রামভক্ত’ বলে দাবি করলেন জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা। জাতীয় স্তরের একটি সংবাদমাধ্যমের অনুষ্ঠানে এমনই দাবি করেছেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা।

সংবাদ চ্যানেলের লাইভ অনুষ্ঠানে এসে প্রকাশ্যে ভজন গেয়েছিলেন ফারুক আবদুল্লা। হিন্দু ধর্মের সেই গানে উল্লেখ রয়েছে রাম এবং শ্যামের।

রাম নামের ঘোরতর বিরোধী ইসলাম ধর্মের মানুষেরা। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে একজন মুসলিম রাজনৈতিক নেতা হয়েও ভজন গাইলেন ফারুক আবদুল্লা! এই বিষয়ে সঞ্চালিকার প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “মুসলিম হয়েও আমি রামের খুব বড় ভক্ত।”

ধর্মীয় বিষয় নিয়ে বহুবার হানাহানির ঘটনা ঘটেছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। হিংসায় লিপ্ত হয়েছে দুই ভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ। এই ব্যাপারে জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা বলেছেন, “দেশ গড়তে হলে সবার আগে হিংসাকে সমাহিত করতে হবে।”

পাকিস্তান নাকি জাতীয়তাবাদের বিরোধিতা- কোনটা ভারতের পক্ষে বেশি ভয়ঙ্কর? সঞ্চালিকার এই প্রশ্নের জবাবে ফারুক আবদুল্লা বলেছেন, “দুটোই আমাদের দেশের পক্ষে ক্ষতিকারক। সবথেকে বড় ভয়ঙ্কর বিষয় হচ্ছে আমাদের দেশের অভ্যন্তরীণ সমস্যাগুলি। বিদেশি শক্তির সঙ্গে মোকাবিলা করার আগে আমাদের নিজেদের সমস্যার সমাধান করা উচিত।”

উক্ত অনুষ্ঠানে ভারত-পাক সম্পর্ক এবং কাশ্মীর সমস্যা নিয়েও মুখ খুলেছেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা। তাঁর কথায়, “এলওসি বজায় রেখেই কাশ্মীর সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। অন্য কোনও উপায়েই উপত্যকায় শান্তি আসবে না। দুই পক্ষকেই বুঝতে হবে কেউ আর কাশ্মীরের কোনও অংশ নতুন করে দখল করতে বা হারাতে পারবে না।”