নয়াদিল্লি: গেরুয়া ঝড়ের আপেক্ষায় দেশ৷ ম্যাজিক ফিগারের বেশি আসন নিয়ে সরকার গড়তে চলেছেন মোদী৷ বেশিরভাগ বুথ ফেরত সমীক্ষাতেই উঠে এসেছে সেই তথ্য৷ তাই কাল বিলম্ব নয়৷ সমীক্ষা রিপোর্ট ভর করেই আগামী পাঁচ বছরের কাজের আগ্রাধিকার ঠিক করে ফেলল বিজেপি৷

মঙ্গল বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির ডাকে শরিক দলের নেতা, মন্ত্রীদের নৈশভোজ দেওয়া হয়৷ ফল প্রকাশের আগেই জিতছি ধরে নিয়েই সেখানেই আগামী পাঁচ বছরের কাজের নকশা তৈরি হয়৷ পরে সেই প্রস্তাব পাসও হয়ে যায়৷ বৈঠক শেষে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজনাথ সিং জানিয়ে দেন এনডিএ হল দেশ শাসনের অন্যতম স্তম্ভ৷

আরও পড়ুন: এবারের নির্বাচন ছিল আমার কাছে তীর্থ যাত্রার মত: মোদী

রাজনাথ সিংহ বলেন, আগামী পাঁচ বছরের জন্য মূলত জাতীয় নিরাপত্তা, জাতীয়তাবাদ, এবং উন্নয়নকে সামনে রেখে কাজ করবে সরকার৷ বিগত পাঁচ বছরে প্রতিশ্রুতির লক্ষ্যমাত্রা সম্পূর্ণ করতে পেরেছে সরকার৷ আগামী সময়সীমায় তা আরও দ্রুত রূপায়ণ করতে হবে৷

মোদীর নজরে দেশের সুরক্ষা৷ বালাকোটে এয়ারস্ট্রাইক ছিল শাসক জোটের এবারের নির্বাচনের অন্যতম প্রচারের ইস্যু৷ গেরুয়া দলের অভ্যন্তরে কান পাতলেই শোনা সন্ত্রাস দমনে কড়া পদক্ষেপের কারণেই মানুষের আস্থা তাদের দিকে গিয়েছে৷ এনডিএর এদিনের বৈঠকে উঠে আসে সেই সন্ত্রাস দমনে সফলতার কথাও৷ রাজনাথ বলেন, ‘‘সন্ত্রাস দমনে আগামী দিনে আরও কড়া পদক্ষেপ নেবে সরকার৷’’

আরও পড়ুন: অমিত শাহের নৈশভোজে বাংলায় রাজনৈতিক হিংসার সমালোচনা

তাঁর কথায়, জাতীয় নিরাপত্তার প্রশ্নে কূটনীতিতে ও প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাপনায় ভারত যে নরম রাষ্ট্র নয় তা এনডিএ সরকার ভালমতই বুঝিয়ে দিয়েছে। নয়াদিল্লির এই অবস্থান বজায় থাকবে।’’

বিরোধীরা বুথ ফেরত সমীক্ষাকে মিথ্যাচার বলেছেন৷ উলটো সুর গেরুয়া শিবিরের গলায়৷ তাদের মতে জয় শুধু সময়ের অপেক্ষা৷ তাই ঘর গুছোতে শুরু করেছে মোদী-শাহ বাহিনী৷ ভোটের আগের অশান্তি ভুলে এদিন দেশের সামনে উঠে এসেছে ঐক্যবদ্ধ এনডিএ-এর ছবি৷