শুরু হয়ে গিয়েছে পুজোর কাউন্ট-ডাউন। বাকি আর মাত্র ৪৮ দিন। পুজোয় যদি সবার চোখ ধাঁধিয়ে দিতে চান, তাহলে এখন থেকেই নেমে পড়তে হবে রূপচর্চার ময়দানে। না না, বিউটিপার্লারে নয় বাড়িতেই রান্নাঘরে থাকা ছোটখাট কিছু জিনিস ব্যবহার করে অনায়াসে আপনি মাতাতে পারেন এবার পূজাঙ্গণ।

প্রতিবেদক; মানসী সাহা
প্রতিবেদক; মানসী সাহা

 

কী করবেন জেনে নিন।

  • রোজ সকালে ইষদুষ্ণ গরম জলে পাতিলেবুর সঙ্গে নুন মিশিয়ে খান। এতে পেটের মেদ ঝড়ার পাশাপাশি ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়বে।
  • নিয়ম করে প্রতিদিন প্রাতঃরাশে ৫টি করে অ্যামন্ড খান। এতে ত্বকের ময়েশ্চার বজায় থাকার পাশাপাশি দূর হয় রুক্ষ্মতা।
  • দুপুরে খাওয়ার সময় ভাতের সঙ্গে কিছুটা কাঁচা হলুদ বাটা ও সরষের তেল মিশিয়ে খান। এতে ত্বক উজ্জ্বল ও ফর্সা হবে। পাশাপাশি পিগমেনটেশনও দূর করতে সাহায্য করবে। pujo-panchali_only_for_site
  • রাতে শোওয়ার আগে এক কাপ করে গরম দুধ খান। দুধ আপনার ক্লান্তি দূর করবে। শরীর সতেজ রাখবে। সেইসঙ্গে ত্বককে করবে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল।
  • সারাদিন প্রচুর পরিমাণে জল খান। এতে আপনার শরীর অতিরিক্ত টক্সিন বেরিয়ে যাবে।
  • এছাড়া চাইলে এই কয়েকদিন বাজার চলতি কসমেটিক্সের থেকে দূরে থাকতে পারেন। পরিবর্তে ব্যবহার করুন ঘরোয়া টোটকা। যেমন:

মুখের যত্ন

১. প্রতিদিন রাতে কাঁচা দুধ/ জল-এর মধ্যে মসুর ডাল ভিজিয়ে রাখুন। সকালে উঠে ভেজানো ডাল বেটে তারমধ্যে মধু, লেবুর রস, হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে লেই তৈরি করে মুখ-সহ সারা শরীরে লাগান। এই প্যাকটি দূর করবে পিগমেনটেশন। আপনার ত্বকে করবে উজ্জ্বল, কোমল, মসৃণ ও ফর্সা। তবে লেইটা একটু বেশি করেই করবেন। দিনের যে কোনও সময় মুখ পরিষ্কার করতে এটাই ব্যবহার করুন।

২. স্নানের পর সারা শরীরে অলিভ ওয়েল ম্যাসাজ করুন। এতে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে।

৩. মুখের ট্যান দূর করতে, সপ্তাহে যে কোনও একদিন লেবুর রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে সারা মুখে ১০ মিনিটি ম্যাসাজ করুন। তারপর ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন।

৪. সপ্তাহে একদিন মূলতানি মাটি ও গোলাপ জল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে মুখে লাগান। এতে মুখের ত্বক ফর্সা হবে। টোনিংয়ের কাজও হবে।

৫. ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করতে প্রতিদিন ঠোঁটে মধুর সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে মাখুন।

চুলের যত্ন

১. চুলে সপ্তাহে একদিন টক দই ও বেসনের প্যাক তৈরি করে মাখুন। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের রুক্ষ্মতা দূর হবে। আপনি পাবেন মসৃন ও কোমল চুল।

২. পনেরো দিন পর দুধ, পাকা কলা ও মধু দিয়ে একটি প্যাক তৈরি করে চুলে মাখুন। জানিয়ে রাখি এটি একটি জাদুই প্যাক। এই প্যাকটি নিয়মিত ব্যবহার করলে প্রাকৃতিক উপায়ে আপনার চুল হবে স্ট্রেট। পাশাপাশি বাড়লে চুলের উজ্জ্বলতা।

৩. সপ্তাহে তিনদিন শ্যাম্পু করুন। আর শ্যাম্পুর আগে মাথায় মাখুন সরষের তেল। চমকানো কিছু নেই। হাবিব জানিয়েছেন, কলকাতার আবহাওয়ায় সরষের তেল খুব ভালো। তাই শছাম্পু করার আগে মাথায় দিন সরষের তেল।

হাত-পায়ের যত্ন

১. সপ্তাহে এদিন হালকা গরম জলে শ্যাম্পু, নারকেল তেল মিশিয়ে ১০ মিনিট হাত ও পা ডুবিয়ে বসে থাকুন।

২. তারপর পিউমিং স্টোন দিয়ে ভালো করে পা ঘষে নিন। ব্রাশ দিয়ে নখ পরিষ্কার করুন।

৩. নেল কাটার দিয়ে পছন্দ মতো নখের শেপ করুন।

 


 

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.