নয়াদিল্লি: একদিকে যখন রাজধানীতে জোটের ঘোষণা করছেন মায়াবতী-অখিলেশ, অন্যদিকে জেটলি তখন আক্রমণ করলেন বিরোধী জোটকে। এই জোটে প্রত্যেকেই প্রধানমন্ত্রী হতে চাইছে বলে দাবি করেছেন তিনি।

শনিবার রামলীলা ময়দানে বিজেপি কর্মীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখছিলেন অরুণ জেটলি। সেখানে তিনি বলেন, ‘কংগ্রেসের শেহজাদা হোক, বাংলার দিদি হোক, অন্ধ্রপ্রদেশের বাবু হোক কিংবা ইউপি-র বেহেনজি। প্রত্যেকের মনেই একটাই ইচ্ছা। ভোতের পরই সবার তলোয়ার বেরিয়ে আসবে।’

এদিকে, এদিনই দিল্লিতে যৌথ সাংবাদিক বৈঠক করে জোটের কথা ঘোষণা করেছেন মায়াবতী ও অখিলেশ।

সমাজবাদী পার্টি প্রধান অখিলেশ যাদব এই জোট সম্পর্কে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে মায়াবতীর প্রধানমন্ত্রী হওয়া প্রসঙ্গে জানান, উত্তরপ্রদেশ থেকে ফের একজন প্রধানমন্ত্রী হতে পারবে সেটাই সবথেকে খুশির বিষয়৷ রাজ্য-রাজনীতিতে পিসি-ভাইপো হিসেবে পরিচিত এই জুটি র মধ্যে অখিলেশ জানান, মায়াবতীর কোনও অপমান হলে তা তারও অপমান৷

প্রসঙ্গত, ১৯৯৩ সালে একই রকম জোট গঠন করা হয়েছিল। সেই পথে হেঁটেই ফের যুযুধান দুই পক্ষ হাত মিলিয়েছে। সাম্প্রতিক কয়েকটি নির্বাচনে এই রাজ্যে বিএসপি-এসপি জোট বিরাট সাফল্য পায়। তারপর থেকেই মহাজোট গড়া নিয়ে চলছিল আলোচনা।