মুম্বই: ভারতে রাজনৈতিক সমালোচনার জেরে আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণের টাইটেল স্পনসর থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল চিনা মোবাইল সংস্থা ভিভো৷ বৃহস্পতিবার সরকরিভাবে আইপিএল ২০২০ থেকে Vivo-কে সাসপেন্ড করল বিসিসিআই৷ শীঘ্রই সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে হতে চলা আইপিএলের জন্য নতুন টাইটেল স্পনসর ঘোষণা করবে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড৷

গত মাসে লাদাখে ভারত ও চিন সীমান্তে অশান্তির বাতাবরণের পর থেকে সারা দেশ জুড়ে চিনা পণ্য সামগ্রী বয়কটের ডাক ওঠে৷ আইপিএলে চিনা স্পনসর সরিয়ে দেওয়ার দাবি উঠে৷ গত রবিবার আইপিএলের গভনিং কাউন্সিলের বৈঠকে চিনা মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা Vivo-কেই টাইটেল স্পনসর হিসেবে রেখে দেওয়া হয়৷ কিন্তু এরপর নানামহল থেকে বিসিসিআই-এর সমালোচনা করা হয়৷ শুধু তাই নয়, আইপিএল বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়৷

পরিস্থিতি বিরুপ দেখে মঙ্গলবার আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণের টাইটেল স্পনসরশিপ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় ভিভো৷ চুক্তি অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগে আগামী বছর ফের স্পনসর করার কথা জানায় চিনা মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা।

বৃহস্পতিবার তাতে সম্মতি জানিয়ে ভিভো আইপিএলে ২০২০-র জন্য সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নিল৷ আইপিএলের মিডিয়া অ্যাডভাইজরি জানিয়েছে যে, বিসিসিআই এবং ভিভো মোবাইল ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড আনুষ্ঠানিকভাবে ২০২০ সালে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগের অংশীদারিত্ব স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বোর্ডের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘আমরা গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকের পরে বসেছিলাম৷ বিসিসিআই ও ভিভো এক বছরের জন্য চুক্তি স্থগিতের বিষয়ে একমত হয়েছে। ২০২৩ সালের পরে তাদের চুক্তি এক বছরের মধ্যে বাড়ানো যায় কিনা তাও আমরা দেখছি।’ চলতি বছর আইপিএল হবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে৷ ৫৩ দিনের টুর্নামেন্ট শুরু হবে ১৯ সেপ্টম্বর, ফাইনাল ১০ নভেম্বর৷

২০১৭ সালের চিনা মোবাইল সংস্থা ভিভো’র সঙ্গে আইপিএলের টাইটেল স্পনসর হিসেবে পাঁচ বছরের চুক্তি হয়৷ চুক্তি অনুযায়ী প্রতি বছর বিসিসিআই-কে ভিভো দেয় ৪৪০ কোটি টাকা৷ পাঁচ বছরের চুক্তি বোর্ডকে মোট ২,১৯৯ কোটি টাকা দেবে চিনা এই মোবাইল সংস্থা৷ কিন্তু পাঁচ বছরের মধ্যে মাত্র দু’বছর আইপিএল-কে স্পনসর করেছে ভিভো৷ বাকি রয়েছে আরও তিন বছরে৷ তবে চলতি বছরে সরে দাঁড়াল আগামী বছর থেকে বাকি তিন বছর অর্থাৎ ২০২১, ২০২২ এবং ২০২৩ পর্যন্ত ভিভো আইপিএলে টাইটেল স্পনসর থাকবে বলে জানা গিয়েছে৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা