ঢাকা: বাংলাদেশ ক্রিকেট মহলে প্রবল উদ্বেগ। যেভাবে বেতন ও পারিশ্রমিক বৃদ্ধি সহ ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘট চলছে ক্রিকেটারদের তাতে জল ঢালার উদ্যোগ কে নেবেন তাই নিয়ে চলছে চর্চা।

সূত্রের খবর, সবকিছু ঠিক থাকলে বিসিবি মঙ্গলবারই সব দাবি মেনে নিতে চলেছে। তারপরেই উঠে যেতে পারে এই নজির গড়া ক্রিকেটার ধর্মঘট। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কর্ণধার নাজমুল হাসান পাপন মঙ্গলবারই জরুরির সভা ডেকেছে।

আসন্ন ভারত সফরের আগে এই ধর্মঘটে প্রবল আলোড়িত বাংলাদেশ সহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মহল। বিসিবি জানাচ্ছে, ভাত সফরের জন্য ২৫ অক্টোবর জাতীয় দলের প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা।

এদিকে ক্যাম্প শুরুর আগেই সোমবারই বিক্ষোভকারী ক্রিকেটারদের নেতা তথা আন্তর্জাতিক অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসান জানিয়ে দেন,১১ দফা দাবি বাস্তবায়িত না হওয়া পর্যন্ত বাইশ গজ থেকে দূরে থাকবেন দেশের ক্রিকেটাররা। তিনি আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র হিসেবে এই ঘোষণা করেন।

ঢাকায় এই নজিরবিহীন সংবাদ সম্মেলনে সাকিব আল হাসানের পাশে দাঁড়ান জাতীয় দলের প্রায় সব তাবড় তাবড় ক্রিকেটার ও অন্যান্যরা। প্রশ্ন উঠছে, এভাবে ধর্মঘট না ডেকে বিসিবি-এর সঙ্গে আলোচনা কেন করলেন না ক্রিকেটাররা।

পরিস্থিতি এখানেই ঘোরালো। বিসিবি মনে করছে, গোটা ঘটনায় এমন কেউ জড়িয়ে যার সম্পর্কে খোঁজ নেওয়া জরুরি। সবকিছু দিক খতিয়ে দেখে ক্রিকেটার ধর্মঘট তুলে নিতে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা করা হবে। বিসিবি আশাবাদী, ধর্মঘট থেকে দ্রুত সরে আসবেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

জানা গিয়েছে, বিসিবি বোর্ড সদস্যদের অনেকেই ধর্মঘটে যাওয়া ক্রিকেটারদের পাশে। তাদের মতামত নিয়েই দ্রুত বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে মঙ্গলবারের জরুরি বোর্ড সভা।