ঢাকা: গরম পড়েছে সারা বাংলায়। নিত্য দিন বাড়ছে গ্রীষ্মের দাবদাহ। এঈ অবস্থায় নারকেল গাছে উঠে ডাব পাড়তে গিয়েছিলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক পড়ুয়া। আর সেটিই যেন কাল হয়ে দাঁড়াল মেধাবী ছাত্র বরুণ বিশ্বাসের জীবনে।

ডাব পারতে গিয়ে নারকেল গাছ থেকে পরে মৃত্যু করেছেন গণিতের ছাত্র বরুন বিশ্বাস। বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান৷ খুব স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে সমগ্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

নিহত বরুণ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত গণিত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। জগন্নাথ হল সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে হলের একটি নারকেল গাছে ডাব পাড়তে উঠেছিলেন বরুণ। সেখান থেকে পরে গিয়ে মারাত্মক জখম হন তিনি। পরে হলের অন্যান্য পড়ুয়ারা তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভরতি করেন। কিছুক্ষণ পর চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

মেধাবী ছাত্রের মৃত্যুতে ভেঙে পরেছেন অধ্যাপক একেএম গোলাম রব্বানী। তিনিই সংবাদ মাধ্যমের কাছে বরুণের মৃত্যুর খবরটি জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, “বই মর্মান্তিক একটি ঘটনা ঘটল। বরুণ খুব মেধাবী ছাত্র ছিল। দিনে একবার ডাব পাড়তে গিয়েছিল, পরে রাতে আবার সেখানে যায়। রাতে গাছ থেকে পড়ে সে গুরুতর আহত হয়। পরে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।”