বার্সেলোনা: দুরন্ত কামব্যাক৷ হাফ ডজন গোল!

ঘরের মাঠ নূ-ক্যাম্পে কোপা দেল রে টুর্নামেন্টের ম্যাচে সেভিয়াকে ৬-১ ব্যবধানে হারাল মেসি অ্যান্ড কোং৷ ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি টাইমে ৯২মিনিটে গোল করেন লিও৷ এছাড়া কুটিনহো দুটি ও রাকিটিচ, রবার্তো, সুয়ারেজ একটি করে গোল করেছেন৷

আরও পড়ুন- ওয়ান ডে’তে ভারতের সাত সর্বনিম্ন স্কোর একনজরে

এর আগে অ্যাওয়ে ম্যাচে সেভিয়ার কাছে ০-২ হেরেছিল বার্সা৷ লজ্জার সেই হার থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজেদের ডেরায় দারুণ প্রত্যাঘাত দিল স্প্যানিশ জায়েন্টরা৷ দুই লেগ মিলিয়ে ৬-৩ ব্যবধানে জিতে কোপা দেল রে’র সেমিফাইনালে পৌঁছল মেসিরা৷ শেষ চার মরশুমেই কোপা দেল রে ট্রফি জিতেছে কাতালান ক্লাব৷ টানা পঞ্চম জয় থেকে আর মাত্র দুই কদম দূরে বার্সেলোনা৷

সেভিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম পর্বের ম্যাচে হোঁটচ খাওয়ার পর কোপা দেল রে’তে মেসিদের খেলার মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল৷ শেষ চার পাকা করে সেই সমালোচনার যোগ্য জবাব দিয়ে ম্যাচ জিতে মেসি বলেন, ‘লা-লিগা, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পাশাপাশি আমরা সব টুর্নামেন্টকে সমান গুরুত্ব দিয়ে খেলি৷ কোনও টুর্নামেন্টেই আমরা হাল ছাড়ি না৷’

আরও পড়ুন- ভয়ংকর বোল্টের সামনে ৯২ রানে শেষ ভারত

ম্যাচের শুরুতে ১৩ মিনিটে সেভিয়ার বক্সের ভিতর লিওকে ফাউল করলে পেনাল্টিতে বল জালে জড়িয়ে দলকে এগিয়ে দেন ফিলিপে কুটিনহো৷ প্রথমার্ধে ৩১ মিনিটে আরও একটি গোল পায় বার্সা৷ এবার গোলদাতা রাকিতিচ৷ আর্থারের মাপা পাস থেকে গোলকিপারকে হ্যান্ডসেক দূরত্বে বোকা বানিয়ে জাল কাঁপান ক্রোট তারকা৷ তার আগে ২৭ মিনিটে পোনাল্টি থেকে গোল বাঁচান বার্সা গোলরক্ষক৷

দ্বিতীয়ার্ধের মিনিট দশেকের মধ্যেই (৫৪মিনিটে) সুয়ারেজের সেন্টার থেকে মাথা ঠেকিয়ে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন কুটিনহো৷ এর পাঁচ মিনিটের মধ্যেই মেসির পাস থেকে স্কোরলাইন ৪-০ করে দেন রবার্তো৷ শেষদিকে সুয়ারেজ ও মেসি আরও দুটি সহজ গোল চাপিয়ে স্কোরলইন ৬-১ করে বার্সা৷ দ্বিতীয়ার্ধে ৬৭ মিনিটে সেভিয়ার হয়ে একটি মাত্র গোল করেন গুইহারমে আরানা৷

আরও পড়ুন- সেডন পার্কে ভারতের ব্যাটিং বিপর্যয়