বার্সেলোনা: বাংলা তথা ভারতের ফুটবলে এমন ঘটনা আকছারই ঘটে থাকে। তবু লিগ শীর্ষে থেকে কোচ বরখাস্তের পথে বোধহয় হাঁটার সাহস দেখাবেন না ইস্ট-মোহন কর্তারাও। যেটা করে মরশুমের মাঝপথে ফুটবল বিশ্বকে চমকে দিল বার্সেলোনা। লা-লিগার শীর্ষে দল, তবু বরখাস্ত কোচ আর্নেস্তো ভালভের্দে। সোমবারই ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল ভালভের্দের বরখাস্ত হওয়ার বিষয়টি। আর মঙ্গলবার নয়া কোচ কিকে সেতিয়েনের প্রশিক্ষণে অনুশীলনও শুরু করে দিলেন লিও মেসি, সার্জিও বুসকেটসরা।

১৯ ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে লা-লিগার শীর্ষে বার্সেলোনা। ভালভের্দের প্রশিক্ষণে প্রত্যাশামতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রি-কোয়ার্টারেও পৌঁছে গিয়েছে দল। তবু কেন এই কোচ ছাঁটাই? অনুসন্ধান করলে দেখা যাবে চলতি বছরের শুরুটা মোটেই বার্সেলোনা সুলভ করতে পারেনি কাতালান ক্লাবটি। প্রথমে লা-লিগার ম্যাচে এস্প্যানিয়লের বিরুদ্ধে ড্র, এরপর স্প্যানিশ সুপার কাপের সেমিতে দিয়েগো সিমোনের স্ট্র্যাটেজির কাছে হেরে বিদায়। এই দুই ফলাফলের সাঁড়াশি আক্রমণ যেন মেসিদের কোচের পদ থেকে ছাঁটাই হওয়ার রাস্তা পরিষ্কার করে দিল ২০১৮, ২০১৯ লা-লিগা জয়ী কোচের।

সঙ্গে ছিল গত দুই মরশুমে প্রথম লেগে এগিয়ে থেকেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনাল থেকে অপ্রত্যাশিত বিদায়ের ঘটনা। স্প্যানিস সুপার কাপের সেমিতে হার যেন কাটা ঘায়ে নুনের ছিটের কাজ করল। আর তাতেই মরশুমের মাঝপথে ভালভের্দের স্থলাভিষিক্ত হলেন রিয়াল বেটিসের প্রাক্তন কোচ কিকে সেতিয়েন। ফুটবলার হিসেবে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মিডফিল্ডার হিসেবে নামডাক ছিল বছর একষট্টির সেতিয়েনের। বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পেশাদার কোচিং কেরিয়ারে বল দখলে রেখে আক্রমণাত্মক ফুটবলের প্রবক্তা সেতিয়েনের কৌশল ফুটবল অনুরাগীদের ভীষণ পছন্দের। বার্সেলোনার আক্রমণাত্মক ফুটবল মনোভাবের সঙ্গে যা দারুণভাবে খাপ খাবে।

২০২২ পর্যন্ত বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হওয়া স্পেনের অন্যতম সেরা এই কোচ নু ক্যাম্পে অনুরাগীদের সঙ্গে পরিচিত হলেন মঙ্গলবারই। উল্লেখ্য, ২০১৮ নভেম্বরে সেতিয়েনের অধীনে থাকা রিয়াল বেটিসের কাছেই লা-লিগায় শেষ হোম ম্যাচ হেরেছিল বার্সেলোনা। খেলার ফলাফল বার্সার বিপক্ষে ছিল ছিল ৩-৪। লা-লিগায় লা পামাসের মতো ছোট ক্লাবকে প্রিমিয়র ডিভিশনে উন্নীত করা কিংবা বেটিসকে ইউরোপা লিগে তুলে নিয়ে যাওয়া প্রশিক্ষকের উপর তাই ভরসা রাখতেই পারেন বার্সা অনুগামীরা।

২০১৭ দায়িত্ব নেওয়ার পর ২০১৮ বার্সাকে কোপা দেল রে এনে দিয়েছিলেন ভালভের্দে। এরপর ২০১৮ এবং ২০১৯ ভালভের্দের অধীনে লা-লিগাও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বার্সেলোনা। এরপর চলতি মরশুমেও শীর্ষে থাকা অবস্থায় তাঁকে সরিয়ে দেওয়ার ঘটনা মনে করাচ্ছে ২০০৩ মরশুমের মাঝপথে লুইস ভ্যান গালকে বরখাস্ত করার ঘটনা। যদিও সেবার লা-লিগায় ১২তম স্থানে ছিল কাতালান ক্লাবটি।