বার্সেলোনা: লুই সুয়ারেজের একমাত্র গোলে ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে রীতিমতো কষ্টার্জিত জয় তুলে নিল বার্সেলোনা৷ ন্যু ক্যাম্পে কোপা ডেল রে-র প্রথম পর্বের সেমিফাইনালে গোলের জন্য ৬৭ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় বার্সাকে৷ শেষে পরিত্রাতা হয়ে দেখা দেন মেসি-সুয়ারেজ যুগলবন্দি৷ দু’জনের মিলিত প্রচেষ্টা গোলের রূপ পেলে হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন ভালভারদে৷

আরও পড়ুন: কোহলির শতরানে দাপুটে জয় ভারতের

প্রথমার্ধের বেশিরভাগ সময় বলের দখল ছিল একতরফা বার্সেলোনার দিকেই৷ ৭৯ শতাংশ বল পজেশন ছিল বার্সার৷ সুযোগও মেলে একঝাঁক৷ তবে ফিনিশিং টাচ দেওয়া সম্ভব হয়নি মেসিদের পক্ষে৷

আরও পড়ুন: ঘরের মাঠে লজ্জার হার চেলসির

বিরতির পর ছবিটা কিছুটা হলেও বদলায়৷ পরিবর্ত হিসেবে কুটিনহো মাঠে নামার পর ভ্যালেন্সিয়া রক্ষণে ফাটল ধরাতে সক্ষম হন মেসিরা৷ আর্জেন্টিনা তারকার ক্রশ থেকে হেডে গোল করেন সুয়ারেজ৷ বার্সেলোনার হয়ে শেষ ষোলো ম্যাচে সুয়ারেজের এটি ১৬ নম্বর গোল৷ ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে ৯ ম্যাচে সমসংখ্যক গোল পেলেন বার্সার উরুগুয়েন তারকা৷

আরও পড়ুন: ১১ সেকেন্ডে গোল খেয়ে হেরে বসল ম্যান-ইউ

বাকি সময়টায় ভ্যালেন্সিয়া যেমন ম্যাচে সমতা ফেরাতে ব্যর্থ হয়, ঠিক তেমনই দ্বিতীয় লেগের আগে ব্যবধান বাড়িয়ে রাখতে পারেনি বার্সা৷ ১-০ গোলে ম্যাচ জিতে মেসিরা মাঠ ছাড়লেও ভ্যালেন্সিয়ার প্রতিরোধ বার্সাকে চিন্তায় রাখতে বাধ্য অ্যাওয়ে ম্যাচে ফিরতি লেগের সেমিফাইনাল নিয়ে৷

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।