নয়াদিল্লি : এটা সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নয়, এটা ডিজিটাল স্ট্রাইক। রাতারাতি ৫৯টি চিনা অ্যাপ বন্ধ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বুঝিয়ে দিয়েছেন চিনকে কতটা শিক্ষা দিতে পারে ভারত। নয়াদিল্লিতে বৃহস্পতিবার এমনই বললেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ।

মন্ত্রী বলেন, কেন্দ্রের এই আচমকা সিদ্ধান্ত অনেকটাই সেই পাকিস্তানের ওপর সার্জিকাল স্ট্রাইক চালানোর মতোই। সীমান্তে চিনা আগ্রাসনের জবাব যে এভাবেও দেওয়া যেতে পারে, তা হয়তো কেউই ভাবেননি। দেশকে রক্ষা করার জন্যই এই ডিজিটাল স্ট্রাইক চালানো হয়েছে। দেশের সম্পদ তথ্য, সেই তথ্যকে সুরক্ষিত রাখার জন্যই মোদীজির এই সিদ্ধান্ত বলে মন্তব্য করেন রবিশঙ্কর প্রসাদ।

এদিন প্রধানমন্ত্রীর একটি বক্তব্যকে উদ্ধৃত করেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী। তিনি বলেন মোদীজি বলেছেন যদি কোনও অশুভ শক্তি ভারতের দিকে নজর দেয়, তবে তাকে যোগ্য জবাব দেওয়ার ক্ষমতা রাখে ভারত। সেই জবাব এই ডিজিটাল স্ট্রাইক।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া তথ্যে এদিন তিনি আরও জানান, ২৯শে জুন রাতেই এক ধাক্কায় ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে কেন্দ্র। সেই ডিজিটাল স্ট্রাইকের পর টিকটক, ইউ সি ব্রাউজারের মতো জনপ্রিয় অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ হয়ে যায়। এটাই সুবর্ণ সুযোগ ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলির কাছে, এমনই জানাচ্ছেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ।

তিনি জানান, বাজারে চিনা অ্যাপের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা নয়, নিজের জোরে এগিয়ে আসুক ভারতীয় সংস্থাগুলি। সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে তৈরি হোক নতুন নতুন অ্যাপ, যা বিশ্ব বাজারে পাল্লা দেবে বিভিন্ন দেশের অ্যাপের সাথে।

তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীর আশা আন্তর্জাতিক মানের দেশীয় অ্যাপ তৈরির সুযোগ হাতছাড়া করবে না কোনও সংস্থা। কেন্দ্র যে সুযোগ করে দিয়েছে নিজেদের প্রমাণ করার, তার সদ্ব্যবহার করবে সংস্থাগুলি। তাই রবিশংকর প্রসাদ চাইছেন নিজেদের তৈরি অ্যাপ নিয়ে এগিয়ে আসুক এই সব সংস্থা। বিদেশি অ্যাপগুলির ওপর থেকে নির্ভরতা কমিয়ে এটাই সুযোগ দেশি অ্যাপগুলিকে প্রমাণ করার, বলে জানান মন্ত্রী।

তাঁর মতে এভাবেই ভারত আত্মনির্ভরতার পথে হাঁটা শিখবে। ধীরে ধীরে প্রসার, প্রচার ও জনপ্রিয়তা বাড়বে দেশি অ্যাপগুলিরও। আশাবাদী মন্ত্রী। এর আগে, ডিজিটাল স্ট্রাইক চালিয়ে মোদী সরকার চিনকে হাতে নয়, ভাতে মারতে উদ্যোগী হয়। সোমবার রাত থেকে ভারতে নিষিদ্ধ করা হয় চিনের সঙ্গে সম্পর্কিত ৫৯টি চিনা মোবাইল অ্যাপ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ