বাঁকুড়া: হাড়কাঁপানো ঠান্ডা বাঁকুড়ায়৷ চলতি মরশুমে বৃহস্পতিবারই শীতলতম দিন বাঁকুড়ায়৷ বৃহস্পতিবার সকালে বাঁকুড়ার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৬.৯ ডিগ্রি৷ জাঁকিয়ে ঠান্ডায় জুবুথবু জেলাবাসী৷ ভরা শীত দেদার উপভোগ করছেন রাঢ় বঙ্গের এই জেলার বিভিন্ন প্রান্তে বেড়াতে যাওয়া পর্যটকরাও৷ শুধু বাঁকুড়াই নয়৷ বাঁকুড়ার পাশাপাশি পারদ নেমেছে লাগোয়া পুরুলিয়া ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাতেও৷ বাঁকুড়ার বিভিন্ন এলাকায় জাঁকিয়ে শীতের সঙ্গেই ভোরের দিকে দেখা মিলছে কুয়াশারও৷

উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির পাশাপাশি প্রতি বছরই জাঁকিয়ে শীত পড়ে রাজ্যের পশ্চিমের জেলাগুলিতে৷ জঙ্গলমহলের ৩ জেলায় ফি বছরই ৬ ডিগ্রির কাছাকাছিও নেমে যায় পারদ৷ এবার খানিকটা হলেও স্লো ব্যাটিং শীতের৷ ডিসেম্বরের শুরু থেকে সেভাবে শীত পড়েনি রাজ্যে৷ গত দু’দিন ধরে হু-হু করে নামছে তাপমাত্রার পারদ৷ গত দু’দিনে ৭ ডিগ্রি নেমেছে কলকাতার পারদ৷ বৃহস্পতিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রি৷ পাল্লা দিয়ে তপমাত্রা নেমেছে জেলাগুলিতেও৷

প্রতি বছরের মতো এবারও শীতের শুরু থেকেই পর্যটকদের ঢল নামতে শুরু করেছে বাঁকুড়ার বিভিন্ন পর্যটনকেন্দ্রগুলিতে৷ ইতিমধ্যেই পর্যটকদের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে বাঁকুড়ার মুকুটমণিপুর, বিষ্ণুপুর, শুশুনিয়া, ঝিলিমিলি এলাকায়৷ জেলাজুড়ে জাঁকিয়ে শীত দারুণ উপভোগ করছেন পর্যটকরা৷

ইতিমধ্যেই পিকনিক পার্টিরও ভিড় বাড়তে শুরু করেছে বাঁকুড়ায়৷ বাঁকুড়াতো বটেই এমনকী পার্শ্ববর্তী পশ্চিম মেদিনীপুর ও পুরুলিয়া থেকেও বহু মানুষ ভিড় বাড়াতে শুরু করেছেন জেলার বিভিন্ন প্রান্তে৷ বিভিন্ন ধরনের হস্তশিল্প তৈরির জন্য এমনিতেই বিখ্যাত বাঁকুড়া জেলা৷ বাঁকুড়ার টেরাকোটার অনন্য সুন্দর সব সৃষ্টি এখনও নজর কাড়ে অনেকের৷ বেড়াতে গিয়ে অনেকেই টেরাকোটার শিল্পের নানান সামগ্রী কিনে আনেন৷ এবারও তার অন্যথা নেই৷ বিষ্ণুপুরের বিভিন্ন এলাকায় পসরা সাজিয়ে হাজির দোকানিরা৷ পর্যটকদের নজর কাড়তে নিত্য নতুন সব শিল্পকার্য নিয়ে হাজির দোকানিরা৷ শীতের প্রকোপ আরও বাড়লে ভিড় আরও বাড়বে পর্যটকদের৷ এমনই জানালেন বিষ্ণুপুরের কয়েকজন ব্যবসায়ী৷