তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: বড়সড় সাফল্য পুলিশের৷ দিন কয়েক আগে থেকে নিখোঁজ ছিল বাঁকুড়া সোনামুখীর বছর পনেরর দুই নাবালিকা৷ তাদের ভিন রাজ্য থেকে উদ্ধার করে বড়সড় সাফল্য পেল বাঁকুড়ার সোনামুখী থানার পুলিশ। তামিলনাড়ুর নামাক্কাল জেলার পাল্লিলায়াম থানা এলাকা থেকে এই দুই নাবালিকাকে উদ্ধার করা হয়৷ এই ঘটনায় যুক্ত রবি হেমব্রমকে পুলিশ গ্রেফতারও করেছে বলে খবর৷ এদের তিন জনেরই বাড়ি সোনামুখী শহরে বলে জানা গিয়েছে৷

খবরে প্রকাশ, সোনামুখী শহরের ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের নীলবাড়ি ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সত্যপীরতলার বছর পনেরর দুই নাবালিকা কয়েক দিন আগে হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যায়। এই দুই পরিবারের তরফে গত ৩১ মে সোনামুখী থানায় নিখোঁজ ডায়েরী করেন।

এরপর পুলিশ ঘটনার তদন্তে নামে। মোবাইল ফোনের টাওয়ার লোকেশানের সূত্র ধরে তামিলনাড়ুর নামাক্কাল জেলার পাল্লিলায়াম থেকে ঐ দুই নাবালিকাকে উদ্ধার পাশাপাশি এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে বাসু হেমব্রম নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে।

অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি সোনামুখীরই রামপুর এলাকায়। অভিযুক্ত যুবক সহ অপহৃতা দুই নাবালিকাকে নিয়ে রবিবার সোনামুখীতে পৌঁছান তদন্তকারী পুলিশ আধিকারিকরা। পুলিশের পক্ষ থেকে অভিযুক্ত বাসু হেমব্রমকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। কি কারণে এই দুই নাবালিকাকে সুদূর তামিলনাড়ুতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

বেশ কয়েক দিন পর নিজেদের মেয়েকে ফিরে পেয়ে অনেকটাই স্বস্তিতে দুই পরিবার। প্রতিবেশী সঞ্জয় চট্টোপাধ্যায় বলেন, এই ঘটনার পর আমরা ভীষণভাবে আতঙ্কিত ছিলাম। সোনামুখী থানার পুলিশ যথেষ্ট দায়িত্বের সঙ্গে দুই নাবালিকাকে উদ্ধারের কাজ করেছেন বলে তিনি জানান।