তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: জল বসন্তের প্রকোপ বাঁকুড়ার জঙ্গলমহল জুড়ে। এই ঘটনায় আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে সিমলাপালের দুবরাজপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার আদিবাসী অধ্যুষিত রঘুনাথপুর গ্রামে প্রায় কুড়িটি পরিবারের বেশ কিছু মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন।

রঘুনাথপুর গ্রামে ৬৫ টি আদিবাসী পরিবার বাস করেন। প্রায় ছ’মাস ধরে এই গ্রামে একের পর এক মানুষ জলবসন্তে আক্রান্ত হচ্ছেন। গ্রামবাসীদের দাবি, এই রোগ এতোটাই ছোঁয়াচে কোন পরিবারের এক জন এই রোগে আক্রান্ত হলে পরবর্তী সময়ে অন্যদের মধ্যেও সংক্রামিত হচ্ছে। ফলে এই অবস্থায় তারা যথেষ্ট আতঙ্কিত বলেই গ্রামের মানুষ জানিয়েছেন।

রঘুনাথপুর গ্রামের বাসিন্দা লক্ষ্মীকান্ত মুর্ম্মু জানিয়েছেন, প্রথমে আমাদের বাড়িতে এক জন এই রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। কয়েক দিনের মধ্যে আরও চারজন একই রোগে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এই অবস্থায় গ্রামে সরকারি ব্যবস্থাপনায় রেখে আক্রান্ত গ্রামবাসীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

এই বিষয়ে জানতে সিমলাপালের বিডিও রথীন্দ্রনাথ অধিকারীকে টেলিফোন করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। ওই গ্রামে মেডিক্যাল টিম পাঠানো হয়েছে। তবে এই রোগ সম্পর্কে গ্রামবাসীদের সচেতনতার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। সকল গ্রামবাসীদের জলবসন্ত রোগ সম্পর্কে সচেতন করে তুলতে ব্লক প্রশাসনের তরফে বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গিয়ে রঘুনাথপুর গ্রামে সচেতনতা শিবির করা হবে বলে তিনি জানান।