বাঁকুড়া: করোনা আতঙ্কে ভুগছে সারা বিশ্ব। বিশ্বের তাবড়, তাবড় বিজ্ঞানীরা দিন রাত এক করেও এই রোগের প্রতিষেধক বের করতে পারেননি। ঠিক সেই মুহূর্তেই প্রাচীণ আয়ুর্বেদ ওষুধে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করা সম্ভব বলে দাবি করলেন বাংলার এক যুবক।

বাঁকুড়ার পাত্রসায়রের শ্যামসুন্দরপুর গ্রামের দিলীপ রায় নামে ওই ব্যক্তির দাবি, শ্বেতকালের মূল, বৃশ্চি কালের মূল, দ্রোণপুস্প, বৃশ্চিকার মতো বেশ কিছু গাছ গাছড়া দিয়ে তৈরি সম্পূর্ণ পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াহীন তার তৈরি ওষুধ করোনা আক্রান্ত রোগীকে যেমন সুস্থ করে তুলবে, তেমনই সংক্রমণ প্রতিরোধেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেবে বলে দাবি করেছেন তিনি।

নিজের দাবির সমর্থনে তিনি আরও বলেন, প্রাচীণ আয়ুর্বেদ শাস্ত্র পড়ে তিনি এই ওষুধ আবিস্কার করেছেন। একই সঙ্গে তিনি বলেন, হাইড্রোক্সোক্লোরোকুইন যদি এক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা নেয়, তবে তার তৈরি এই ওষুধ আরও বেশি কার্যকরী ভূমিকা নেবে। এই দেশ ও পৃথিবীর সংকটকালে তার তৈরি এই ওষুধ ভারতীয় মেডিক্যাল বোর্ড পরীক্ষা করে দেখুক এমন দাবিও তিনি করেন।

করোনার হাত থেকে তারা রক্ষা পেতে অনেকেই খেয়েছেন জানিয়ে গ্রামবাসী ঝুমা হাজরা বলেন, শুধু নিজেরা খাওয়া নয়, অনেক আত্মীয় কুটুম্বের বাড়িতেও এই ওষুধ পৌঁছে দিয়েছি।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV