নয়াদিল্লি : দুর্গাপুজো শেষ হলেও, উৎসব বাকি। রয়েছে কালীপুজো, দিওয়ালি, ভাইফোঁটার মত উৎসব। তাই বন্ধ থাকবে ব্যাংক। ফলে ব্যাংক বন্ধ থাকার তারিখগুলো না জানলে সমস্যায় পড়তে পারেন সাধারণ মানুষ। প্রায় ৮দিন ব্যাংক বন্ধ থাকবে নভেম্বর মাসে বলে জানা গিয়েছে।

এরই সঙ্গে আশঙ্কা থাকছে এটিএমও কাজ না করার। অর্থাৎ ব্যাংক বন্ধ থাকার দিনগুলোতে এটিএম থেকে টাকা নাও পেতে পারেন। এই ছুটির দিনগুলোর মধ্যেই পড়ছে দ্বিতীয় ও চতুর্থ শনিবার, রবিবারগুলিও। রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার নির্দেশ অনুযায়ী বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসবের দিনে ছুটি রাখা হয়েছে সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকগুলিতে। জেনে নিন কোন কোন দিন যেতে পারবেন না আপনার নিকটবর্তী ব্যাংকে।

কেন্দ্র সরকার নির্দেশিত ছুটি ছাড়াও রয়েছে রবিবার, দ্বিতীয় ও চতুর্থ শনিবার। রাজ্য বিশেষেও ছুটির দিন ব্যাংক বন্ধ থাকার নির্দেশ রয়েছে।

নভেম্বর মাসে ব্যাংক বন্ধ থাকার দিনগুলি হল

১. পয়লা নভেম্বর – রবিবার

২. ৮ই নভেম্বর – রবিবার

৩. ১৪ই নভেম্বর- দ্বিতীয় শনিবার এবং দিপাবলী

৪. ১৫ই নভেম্বর – রবিবার

৫. ২২শে নভেম্বর –রবিবার

৬. ২৮শে নভেম্বর – চতুর্থ শনিবার

৭. ২৯শে নভেম্বর – রবিবার

৮. ৩০শে নভেম্বর – গুরুনানক জয়ন্তী

এই দিনগুলিতে ব্যাংকে গিয়েও ফিরে আসতে হবে গ্রাহকদের। কারণ ব্যাংক বন্ধ থাকবে। তবে একটি বিষয় জেনে রাখা ভালো। এই দিনগুলিতে এটিএম থেকেও টাকা না পাওয়া যাওয়ার সম্ভাবনা থাকছে। তাই সতর্ক থাকুন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।