স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: এম আর বাঙ্গুর হাসপাতালে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের পরিদর্শনের দাবি জানালেন বাম পরিষদীয় দলের নেতা সুজন চক্রবর্তী।হাসপাতালের পরিকাঠামো তাদের খতিয়ে দেখা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। কয়েকদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়। তাতে এক ব্যক্তির গলা শোনা যায়। তিনি দাবি করেন, সেটি বাঙ্গুরের আইসোলেশন ওয়ার্ডের ছবি।

সেখানে করোনা সন্দেহে ভরতি ব্যক্তিদের পাশেই কয়েকটি মৃতদেহ পড়ে আছে। তিনি এও দাবি করেন, হাসপাতালে ভরতির পর থেকে কমপক্ষে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। প্রত্যেকেরই শ্বাসকষ্টে মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু মৃতদেহ সরানো হচ্ছে না। সেই ভিডিয়োটি টুইট করেন বাবুল সুপ্রিয়। ভিডিয়োটি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তদন্তের আর্জি জানান বিজেপি সাংসদ।

এদিকে, ভিডিও ভাইরাল হতেই মঙ্গলবার রাজ্যের সব করোনাভাইরাস হাসপাতালে মোবাইল ফোন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বাবুলের দাবি, এম আর বাঙ্গুরের ভিডিয়োয় গলা শুনতে পাওয়া ওই ব্যক্তির করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কলকাতা পুলিশ ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। তাঁকে আটক করা হয়েছে।

এদিন সুজন চক্রবর্তী বলেন, “বাঙ্গুর হাসপাতালে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের যাওয়া উচিত। সেখানে গিয়ে কি অবস্থা তাঁরা দেখুক। রাজ্য সরকারেরই উচিত কেন্দ্রের টিমকে বাঙ্গুরে পাঠানো।”

উল্লেখ্য মঙ্গলবার থেকে রাজ্যে করোনা সংক্রমিত এলাকা পরিদর্শন করছে কেন্দ্রের প্রতিনিধি দল। এই ভিডিও প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “প্রযুক্তির যুগে অনেক কিছুই হতে পারে। এর আগে পাকিস্তান, বাংলাদেশের ভিডিও এরাজ্যের বলে চালানো হয়েছে। প্রশাসন এটা তদন্ত করে দেখবে। তবে আমার হয় এটা রাজনীতি করার সময় নয়, এক সঙ্গে কাজ করার সময়। প্রধানমন্ত্রীও সেকথা বলছেন। কিন্তু তাঁর দলের নেতারা আদৌও কি সেটা মানছেন?”

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।