ঢাকাঃ   স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ২৫ শতাংশ শেয়ার পেতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে চিন এবং ভারত। ডিএসই’র এই ২৫ শতাংশ শেয়ারের মালিকানা কেনার জন্য দুই দেশই মরিয়া।

ডিএসই’র ২৫ শতাংশে রয়েছে ২.৮ বিলিয়ন শেয়ার। ডিএসই কর্তৃপক্ষ চিনের সাংহাই ও শেনঝেন স্টক এক্সচেঞ্জের একটি কনসোর্টিয়ামের প্রস্তাব বিবেচনা করছিল। তারা প্রতিটি শেয়ার ২২ টাকা (০.২৬ ডলার) দরে কেনার প্রস্তাব দিয়ে সর্বোচ্চ দরদাতা হয়েছিল। এতে ৩ কোটি ৭০ লাখ টাকার কারিগরি সহযোগিতার প্রস্তাবও ছিল। অন্যদিকে ভারতের প্রস্তাব ছিল শেয়ার প্রতি ১৫ টাকার।

চিনের সঙ্গে দরাদরিতে পেরে না উঠে বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দেনদরবার করছে। উভয় দেশের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ডিএসইকে দুটি প্রস্তাব ভালোভাবে মূল্যায়ন করতে বলেছে বাংলাদেশ স্টক এক্সচেঞ্জ। তাদের পরামর্শ এখনই কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না নেওয়ার।

প্রসঙ্গত, চিনা প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ভারতের যে কনসোর্টিয়াম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে তাতে যুক্ত আছে যুক্তরাষ্ট্রের নাসদাক ও ফ্রন্টিয়ার বাংলাদেশ। ডিএসই কর্তৃপক্ষকে দেওয়া প্রস্তাবে তারা জানিয়েছিল, স্টক এক্সচেঞ্জের আধুনিকায়নে তারা বিনিয়োগ করবে। একই সঙ্গে পাঁচ বছরের জন্য পর্ষদে দুজন প্রতিনিধি রাখার দাবিও ছিল তাদের।