ঢাকা: একদিকে বন্যা তাণ্ডব অন্যদিকে করোনা পরীক্ষায় বিরাট জালিয়াতি চক্রের রমরমা ঘিরে আতঙ্কিত সবাই। এর মাঝে মারণ ভাইরাস মোকাবিলায় কিছুটা অগ্রগতি বাংলাদেশে।করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা লাখ ছাড়িয়েছে।

ঢাকায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন আরও ৪ হাজার ৯১০ জন। ফলে মোট সুস্থ হলেন ১ লক্ষ ৩ হাজার ২২৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টয় মৃত্যু হয়েছে আরও ৩৩ জনের। মোট মৃত ২ হাজার ৪২৪ জন। সুস্থতার হার ৫৪ দশমিক ৩১ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৮ শতাংশ।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, এখনও পর্যন্ত মৃতদের মধ্যে ১ হাজার ৯১৩ জন পুরুষ এবং ৫১১ জন মহিলা। আর সর্বাধিক মৃত্যু হচ্ছে রাজধানী ঢাকা সংলগ্ন ও ঢাকা বিভাগেই। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩ জন, রাজশাহী বিভাগে ৪ জন, রংপুর বিভাগে ২ জন, সিলেট বিভাগে ৫ জন, খুলনা বিভাগে ৫ জন এবং বরিশাল বিভাগে একজন।

বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়। প্রথম মৃত্যু ঘটে গত ১৮ মার্চ। এরপর ১৪ এপ্রিল ৩৮তম দিনে কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা ১ হাজারে পৌঁছায়। গত বছরের ডিসেম্বরে চিন থেকে ছড়িয়েছিল করোনাভাইরাস। ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে এখন এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের তথ্য দিচ্ছে ওয়ার্ল্ডোমিটার। সেই তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাসে এখনও পর্যন্ত বিশ্বে আক্রান্ত ১ কোটি ৩২ লক্ষ ৪৮ হাজার ৯৫৫ জন। তাদের মধ্যে বর্তমানে ৪৯ লক্ষ ৫৫ হাজার ১৪২ জন চিকিৎসাধীন। ৫৯ হাজার ২০৯ জন আশঙ্কাজনক। আক্রান্তদের মধ্যে ৭৭ লক্ষ ১৭ হাজার ৯৭২ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ