ঢাকা:  বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে ১৭ জন পুরুষ এবং বাকি ৫ জন মহিলা। এখনও পর্যন্ত এই নিয়ে সর্বমোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে তিন হাজার ১৫৪ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৮৬ জন। ৩ হাজার ৬৮৪ টি নুমনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর তা করার পরই এই ফলাফল এসেছে।

শনিবার বাংলাদেশজুড়ে ঈদ পালন হয়। এরপরেই এই তথ্য যথেষ্ট চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে। আজ রবিবার দুপুরে কোভিড-১৯ রোগ নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক(প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি বলেন, রোববার ৩৬৮৪ টি নুমনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যাদের মধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন জন। এতে দেশে সবমিলিয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই লাখ ৪০ হাজার ৭৪৬ জনে। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ০৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন৫৮৬ জন।

এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৩৬ হাজার ৮৩৯ জন। রবিবার মৃত ২২ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৩ জন, খুলনা বিভাগের ৩ জন, রাজশাহী বিভাগের ৪ জন, বরিশাল বিভাগের ২ জন এবং সিলেট বিভাগের ১ জন। হাসপাতালে মারা গেছেন ২০ জন এবং বাড়িতে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বুলেটিনে বরাবরের মতো করোনা থেকে সুরক্ষিত ও সুস্থ থাকতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান ডা. নাসিমা।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা গেছে, জুন মাসে ৯৮ হাজার ৩৩০ জন আক্রান্ত হন। জুন মাসে গড়ে প্রতিদিন ৩ হাজার ২৭৮ জন আক্রান্ত হন। আর সর্বোচ্চ সংখ্যক মৃত্যু হয়েছে জুলাই মাসে। সংখ্যাটি ১ হাজার ২৬৪ জন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ