ঢাকা: বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রতিদিনের তথ্য নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ব্রিফিং বুধবার থেকে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এর বদলে নিয়মিত প্রেস রিলিজ দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের এমন নির্দেশিকা ঘিরে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। বিবিসি জানাচ্ছে এই খবর। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি এখন অনেকটা ভালো এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এই কারণে তাদের সিদ্ধান্ত একজন ব্যক্তিকে দিয়ে আর বুলেটিন না করে প্রেস রিলিজ দেওয়া। সংবামাধ্যমকে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে প্রতিদিনের করোনাভাইরাসের তথ্য পাঠানো জানানো হবে।

বাংলাদেশের করোনাভাইরাস সংক্রমণের যাবতীয় তথ্য নিয়মিত বুলেটিনের মাধ্যমে তুলে ধরছিলেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্মকর্তারা।

মঙ্গলবার শেষ স্বাস্থ্য বুলেটিন পরিবেশন করা হবে অনলাইনে। বুধবার থেকে সংবাদ মাধ্যমের কাছে প্রেস রিলিজ আকারে করোনা সংক্রমণ বিষয়ক তথ্য পাঠানো হবে।

এর আগে করোনা বিষয়ক ব্রিফিং এনেছে সাংবাদিকদের প্রশ্ন নেওয়া বাদ দেওয়া হয়। তারপর এটি একটি বুলেটিন আকারে প্রকাশ করা হচ্ছিল।

এবার বুলেটিন বন্ধ করে শুধুমাত্র প্রেস রিলিজ বন্টনের নির্দেশে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রক বা অধিদফতর ঠিক কী করতে চাইছে সেটা তারা নিজেরাই জানে না। এই ধরণের সিদ্ধান্তকে সমালোচনা করে তাঁরা বলেছেন, সব দেশেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত প্রেস ব্রিফিং হয়। বাংলাদেশ কেন এর থেকে দূরে থাকছে বলেও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটার এবং স্বাস্থ্য অধিদফতরের হিসেবে বাংলাদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২লক্ষ ৬০ হাজারের বেশি। মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ৪০০ ছাড়িয়েছে। সুস্থ দেড় লক্ষের বেশি মানুষ।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও