স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : বাংলার বাইরের শিল্পীকে দিয়ে কি আগে রিয়েলিটি শো’তে জাজমেন্ট করায়নি। হ্যাঁ করিয়েছে। কিন্তু প্রতিবাদ হয়নি। এবার সেই প্রতিবাদটাই করছে বাংলাপক্ষের শাখা শিল্পী পক্ষ। কারণ এবারে নাকি সারেগামাপা’র মঞ্চে নব্য প্রজন্মের গায়কদের বিচার করবেন মিকা সিং। সরাসরি তাঁরা হানা দিল জি বাংলার ওই শ্যুটিং স্টুডিয়োতে।

এর আগেও বহু স্থানে বাংলা পক্ষ বাংলা ও বাঙালির জন্য দাবী জানিয়ে বিভিন্ন সংস্থার অফিসে হানা দিয়েছে প্রতিবাদ জানিয়েছে। লড়াই করেছে রেডিয়ো এফএম’এ বাংলা গান না চালানো নিয়ে। হিন্দি গানের আধিক্য নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে। একই কারনে তাঁরা হানা দেবে জি বাংলার ওই স্টুডিয়োতে, কারণ বাংলার বাইরের অবাঙালি এবং বাংলা না জানা একজন শিল্পী সেখানে এসে বিচার করছেন বাংলার নতুন প্রজন্মের গায়কদের। সুর , তাল পরের কথা। বাংলা পক্ষের স্পষ্ট প্রশ্ন, ‘বাংলায় কি আর ভালো কোনও গান বিচার করার গায়ক পাওয়া যাচ্ছে না?’

বাংলা শিল্পী পক্ষের হয়ে অমিত সেন জানিয়েছেন, ‘জি বাংলা সারেগামাপা, বাংলা সঙ্গীতের একটি অন্যতম জনপ্রিয় অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠান বাংলার ভবিষ্যতের শিল্পীদের উঠে আসার একটি মঞ্চ। দেখা গিয়েছে এই মঞ্চে প্রবল ভাবে হিন্দি গান পরিবেশন করা হচ্ছে। একই ভাবে বিচারকের আসনে দেখা যাবে হিন্দি গানের শিল্পীদের। বাংলা গানের সঠিক বিচার একজন অবাঙালি শিল্পীর পক্ষে যথাযথ ভাবে করা সম্ভব নয়। বাংলার মাটি, সংস্কৃতি এবং জীবনযাত্রার সঙ্গে যোগাযোগ হীন ব্যক্তি কখনই বাংলা গানের বিচার করতে পারেন না। বাংলার গুনি শিল্পীদের বিচারকের আসনে আমন্ত্রণ না বাইরে থেকে শিল্পীদের এনে বিচারকের আসনে বসানোর প্রতিবাদ ইতিমধ্যেই করেছেন বাংলার শিল্পীরা। আমারা এই শিল্পীদের দাবিকে সর্বতভাবে সমর্থন করি। এই গোটা ঘটনার প্রতিবাদে সারেগামাপা-এর শুটিং -এর মঞ্চে প্রতিবাদ দেখালাম ও ডেপুটেশন জমা দিয়েছি।’

শুধু বাংলাপক্ষ নয়, জি সারেগামাপা-র নতুন সিজনে বিচারক হয়ে আসছেন মিকা সিংহ এটা জানতে পেরে অনেকে বাংলার শিল্পীই প্রশ্ন তুলেছেন। অনেকেই ব্যাপক ক্ষুব্ধ। অনেকেই জানাচ্ছেন এটা বাংলা গান ও বাঙালি গায়কদের আগামী প্রজন্মের প্রতি অত্যন্ত খারাপ বিচার।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।