বালুরঘাট: পুলিশ অফিসারের আত্মহত্যায় চাঞ্চল্য ছড়ালো বালুরঘাটে। মালদহ জেলায় বাড়ি মৃত সাব ইন্সপেক্টরের নাম সুদীপ্ত দাস। বালুরঘাট সদরের ট্রাফিক অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বালুরঘাট থানা লাগোয়া পুলিশ আবাসনে একাকী থাকতেন তিনি। সম্প্রতি মালদহ থেকে তাঁর পরিবার এসেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে বৃহস্পতিবার রাত্রী দশটা নাগাদ ট্রাফিফ অফিসে কাজ সেরে আবাসনে যান তিনি। মাঝ রাতে সেখানেই আত্মহত্যার চেষ্টায় ঘুমের ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। খবর পেয়ে বালুরঘাট থানার পুলিশ উদ্ধার করে জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে কুমারগঞ্জ থানার ওসি থাকাকালীন সেখানে মহিলা সিভিক কর্মীর সাথে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন।। সম্ভবত তা নিয়ে অশান্তির জেরেই আত্মহত্যার পথ তিনি বেছে নিতে পারেন বলে অভিযোগ। শুক্রবার তাঁর মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হবে।

এব্যাপারে দক্ষিণ দিনাজপুরের পুলিশ সুপার দেবর্ষী দত্ত জানিয়েছেন যে ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। গতরাতে তিনি ঘুমের ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশ তাঁকে আবাসন থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষনা করা হয়। কি কারণে তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন সেব্যাপারে তদন্ত চলছে বলেও পুলিশ সুপার জানিয়েছেন।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।