বালুরঘাটঃ  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় শুক্রবার থেকেই রাজ্যে শুরু অশান্তি। জেলায়-জেলায় চরম আকার নিয়েছে প্রতিবাদ। কোথাও রাস্তা অবরোধ আবার কোথাও রেল রোকো। পথে বেরিয়ে শুক্রবার দিনভর হয়রানির একই ছবি ধরা পড়েছে রাজ্যের বিভিন্ন অংশে। ঘটনার ২৪ ঘন্টা কেটে গেলেও, শনিবার সকাল থেকে ফের উত্তেজনা ছড়িয়েছে বাংলার সর্বত্র। কোথাও রেল অবরোধ তো আবার কোথাও টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ বিক্ষোভকারীদের। এই অবস্থায় উত্তেজনার আগুন জ্বলছে সর্বত্র।

যদিও বারবার মুখ্যমন্ত্রীর তরফে সবাইকে শান্ত থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। আইন নিজেদের হাতে না তুলে নেওয়ার জন্যে বার্তা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু তা সত্যেও বিক্ষোভ চলছে সর্বত্র।

গোটা রাজ্যের পাশাপাশি নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় প্রতিবাদের আগুন দক্ষিণ দিনাজপুরেরও। জেলায় প্রথম এই আগুন জ্বালালো সিপিআইএম। ক্যাবের বিরোধিতায় শনিবার সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কুশপুতুল পোড়ানো হয়। এদিন সন্ধ্যায় সিপিআইএম পক্ষ থেকে গঙ্গারামপুরে ক্যাবের বিরোধিতায় আন্দোলন গড়ে তুলতে কর্মীসভার আয়োজন করা হয়। সভার শেষে দলীয় কর্মী সমর্থকদের নিয়ে লাল ঝান্ডার বিক্ষোভ মিছিল শহর পরিক্রমা করে। মিছিলের শেষে সিপিআইএম নেতা নারায়ণ বিশ্বাসের নেতৃত্বে গঙ্গারামপুর চৌপথিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কুশপুতুল দাহ করা হয়।

এদিন সিপিআইএম সম্পাদক নারায়ণ বিশ্বাস বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাস করে বিজেপি সরকার হিন্দু মুসলিমদের মধ্যে বিভেদ তৈরির চেষ্টা করছে। ভারতবর্ষ কারও একার না বলে মন্তব্য বর্ষীয়ান এই নেতার। এই দেশ সবার বলে তিনি দাবি করেন।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।