করাচি: করাচিতে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা। সোমবার সকালে স্টক এক্সচেঞ্জ বিল্ডিংয়ের মধ্যে ঢুকে হামলা চালায় জঙ্গিরা। অন্তত ২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

এরপরই এই ঘটনারে দায় স্বীকার করল বালোচ লিবারেশন আর্মি। তারাই এই হামলা চালিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

মাজিদ ব্রিগেড নামে বালোচ লিবারেশন আর্মির একটি ইউনিট এই হামলা করেছে। চারজন আত্মঘাতী জঙ্গি ছিল বলে স্বীকার করেছে ওই সংগঠন। চার জঙ্গিকেই নিকেশ করা সম্ভব হয়েছে।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন সিন্ধ প্রদেশের গভর্নর। তিনি জানিয়েছেন, দ্রুত সবরকম পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

পাক সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, সোমবার সকাল ৯ টা নাগাদ সশস্ত্র কিছু লোকজন স্টক এক্সচেঞ্জের ভিতরে ঢোকে। বিল্ডিংয়ের গেটে গ্রেনেড হামলা চালায় প্রথমে। তাতেই দু’জনের মৃত্যু হয় ও অনেকে আহত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশ সার্জেন ড. কারার আহমেদ আব্বাসি জানিয়েছেন পাঁচজনের দেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছে হাসপাতালে। আহত হয়েছে পুলিশ সহ সাত জন।

কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় পুলিশ ও রেঞ্জার অফিসাররা। সেখানেই খতম করা হয় চার বন্দুকবাজকে। আপাতত সবাইকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে। মৃত হামলাকারীদের কাছ থেকে অস্ত্র ও গ্রেনেড উদ্ধার করা হয়েছে।

আহতের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। ফলে উদ্ধারকাজে ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছেন পাকিস্তানের সমাজসেবী সংস্থা এধি ফাউন্ডেশনের সদস্যরা। রয়েছেন সংস্থার প্রধানও।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।