লখনউ: তাজমহল না তেজো মহল এই নিয়ে বিতর্ক মাঝে মধ্যেই দানা বাঁধে৷ সেই বিতর্ক আরও বাড়িয়ে তুলল বজরং দল৷ দলের মহিলা শাখার জেলা সভানেত্রী তাজমহলকে শুদ্ধ করতে ধূপধুনো দেখিয়ে ও গঙ্গাজল ছিটিয়ে ‘পবিত্র’ করে তোলেন৷ সেখানে করেন আরতিও৷ সম্প্রতি সেই আরতির ভিডিও ভাইরালও হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ তারপরই বজরং দলনেত্রীর এমন কাণ্ড তাজমহলের নিরাপত্তা নিয়ে বড় প্রশ্ন তুলে দেয়৷ আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া ফুটেজটি সত্যি কিনা তা খতিয়ে দেখছে৷

এমনটা যে বজরং দল করতে চলেছে তার ইঙ্গিত অবশ্য আগেই মিলেছিল৷ তাজমহলে এখন শুক্রবার ছাড়া অন্যদিন নমাজ পড়া বন্ধ৷ কিন্তু আর্কিওলজিক্যাল অফ ইন্ডিয়ার নির্দেশকে অমান্য করে অন্য দিনে তাজমহলে ঢুকে নমাজ পড়েন স্থানীয়রা৷ এমনটাই অভিযোগ৷ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করে বজরং দল৷ জানায়, যারা এমন কাজ করেছে তাদের শাস্তি দিতে হবে৷ না হলে তারা এই স্মৃতিশৌধে ঢুকে আরতি করে তাজমহলকে শুদ্ধ করে তুলবেন৷

ফাইল ছবি

যেমন দাবি তেমন কাজ৷ শনিবার তাজমহলে ঢুকে পুজো অর্চনা করেন বজরং দলনেত্রী মীনা দিবাকর৷ পরে তিনি বলেন, ‘‘ ওখানে শিবমন্দির আছে৷ নমাজ পড়ার ফলে তার পবিত্রতা নষ্ট হয়েছে৷ তাজমহলে এখন শুক্রবার করে নমাজ পড়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ কিন্তু সেই নির্দেশ অমান্য করে অন্য দিনেও নমাজ পড়া হচ্ছে৷ তার প্রতিবাদে এবং তাজমহলকে শুদ্ধ করতে আরতি পুজো করা হয়েছে৷’’

এদিকে এই ঘটনা তাজমহলের নিরাপত্তাকে প্রশ্নের মুখে ফেলে দেয়৷ কেননা কিছু জিনিস নিয়ে তাজে প্রবেশ নিষিদ্ধ৷ বজরং দলনেত্রী দেশলাই বাক্সের মতো নিষিদ্ধ বস্তু নিয়ে তাজে ঢুকে পড়েন৷ এই নিয়ে এএসআই ও সিআইএসএফকে প্রশ্ন করা হলে তাদের কাছ থেকে জুতসই জবাব মেলেনি৷ তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ে সেটির ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে৷ অন্যদিকে কংগ্রেসের তরফে এই ঘটনার নিন্দা করা হয়েছে৷ জানিয়েছে, এমন ঘটনা সম্প্রদায়ের সম্প্রদায়ের মধ্যে তিক্ততা বাড়াবে৷