কলকাতা: আবারও রাজ্যের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এবার শিক্ষিক নিযোগ ঘিরে দুর্নীতির অভিযোগ তুললেন বৈশাখী। রাজ্যকেই কাঠগড়ায় তুলেছেন শোভন-বান্ধবী। যদিও বৈশাখীর তোলা অভিযেগা নিয়ে রাজ্যের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। এরই মাঝে রাজ্য উচ্চশিক্ষা দফতরে ওএসডি পদে বসানো হয়েছে এক শিক্ষিকাকে। ইতিমধ্যেই এই নিয়োগ নিয়ে উচ্চশিক্ষা দফতর বিজ্ঞপ্তিও জারি করেছে। বিষয়টি জানতে পেরেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর অভিযোগ, একজন দুর্নীতিগ্রস্ত শিক্ষিকাকে উচ্চপদে বসানো হয়েছে। স্বজনপোষণের জেরেই ওই শিক্ষিকা ওই পদে বসেচেন বলে অভিযোগ শোভন-বান্ধবীর।

বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, উচ্চশিক্ষা দফতেরর ওএসডি পদে যাঁকে বসানো হয়েছে তিনি দুর্নীতিগ্রস্ত। মিল্লি আল আমিন কলেজে ছিলেন। দুর্নীতিগ্রস্ত একজন শিক্ষিকাকে স্বজনপোষণ করে উচ্চশিক্ষা দফতরের উচ্চপদে বসানো হয়েছে বলে অভিযোগ প্রাক্তন মেয়রের বান্ধবীর। বৈশাখীর আরও দাবি, দুর্নীতিতে অভিযুক্তকেই সরকারি উচ্চপদে যদি বসানো হয় তবে সাধারণ মানুষ বিচার পাবেন কী করে?

উল্লেখ্য, মিল্লি আল আমিন কলেজের অভ্যন্তরীণ সমস্যা দীর্ঘদিনের। কলেজের ভিতরের গন্ডগোলের জেরেই বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় কলেজের অধ্যক্ষ পদ থেকে সরে দাঁড়াতে চেয়ে ইস্তফাপত্র পাঠিয়েছেন। এদিকে, দিন কয়েক আগেই বিকাশ ভবনে গিয়েছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেই বৈঠক থেকে আচমকাই কাঁদতে কাঁদতে বেরিয়ে যেতে দেখা যায় বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

সময়টা ভালো যাচ্ছে না শোভন-বৈশাখীর। একদিকে বিজেপিতে যোগ দিয়েও পুরোদমে রাজনীতির ময়দানে তাঁরা নামতে পারেননি। রাজ্য গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে একাধিক ক্ষেত্রে মতের অমিল হওয়াতেই সমস্যা বেড়েছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

অন্যদিকে, তাঁদের তৃণমূলে ফেরার সম্ভাবনাও ক্ষীণ। যদিও এর আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নবান্নে গিয়ে দেখা করে এসেছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। ঠিক তার পরেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিধানসভা কেন্দ্রের দায়িত্ব তাঁর স্ত্রী রত্নার হাত থেকে নিয়ে শোভন ঘনিষ্ঠ এক কাউন্সিলরকে দেওয়া হয়। শোভনকে তৃণমূলে ফেরাতেই পরোক্ষে বার্তা দেওয়ার চেষ্টা হয়েছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কিন্তু এরপরেও জট কাটেনি।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

Tree-bute: রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও