কলকাতা: রোজভ্যালি কাণ্ডে গৌতম কুণ্ডুর জামিনের আবেদন খারিজ করলেন বিচারপতি শিবকান্ত প্রসাদ। পাশাপাশি আদালত নির্দেশ দেন সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে গৌতম কুণ্ডুকে চিকিৎসা করাতে হবে। যার খরচ বহন করবে ইডি (এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট)৷

গৌতম কুন্ডু ৪ বছর ১১ মাস জেলে থাকার পর হাই কোর্টে জামিনের আবেদন করেন৷ রোজভ্যালি কর্তার আইনজীবী অরুণ মুখোপাধ্যায় আদালতে জানান, গৌতম কুণ্ডুর ভোকাল ক্যান্সার আছে, তাই তাকে জামিন দেওয়া হউক৷ কিন্তু শুক্রবার আদালত তার জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয়৷ তবে আদালত নির্দেশ দিয়েছে, গৌতম কুণ্ডুকে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে হবে ইডিকে৷

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে জুন মাসে রোজভ্যালি কাণ্ডে ইডি ১৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন৷ তাছাড়া ইডি (এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট) ১৭ হাজার ৫২০ কোটি টাকা প্রতারণা মামলার চার্জশিট জমা দেয় বিশেষ সিবিআই আদালতে৷ সেই চার্জশিটে নাম রয়েছে গৌতম কুণ্ডু-র৷ এছাড়া রয়েছে রোজ ভ্যালি হোটেল এন্টারটেনমেন্টের নামও৷

রোজ ভ্যালি-র বিরুদ্ধে অভিযোগ,সম্পত্তি ও চড়া সুদের টোপ দিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে ১৭ হাজার ৫২০ কোটি টাকা তোলা হয়েছে৷ এইভাবে হাজার হাজার কোটি টাকা তোলার পর সেই টাকা কোথায় এবং কাদের কাছে গিয়েছে সেইসব নাম-ঠিকানার তালিকা তৈরি করছে ইডি৷

এর আগেই রোজ ভ্যালি তদন্তে গতি আনতে ইডি রোজ ভ্যালি-র জমি বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু করে৷ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার তালিকায় রয়েছে দিঘা ও মন্দারমণিতে রোজভ্যালির বিলাসবহুল হোটেল৷ এছাড়া তদন্তের সময়ে ইডি আধিকারিকরা জানতে পারেন রাজারহাট ও নিউ টাউনের একাধিক জায়গাতেও সংস্থার প্রচুর জমি আছে৷

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব