স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া: বাহুবলী-২ এর মহেশমতি সাম্রাজ্যের কথা মনে আছে তো? ১৭ তম বর্ষে এই থিমকে ঘিরেই মণ্ডপসজ্জা গড়ে উঠছে হাওড়ার জে রোড বেলগাছিয়া ছাত্র মিলন সংঘে।

মণ্ডপে এলেই আপনার মালুম হবে বুঝি বাহুবলীর বিশাল সাম্রাজ্যে আপনি প্রবেশ করেছেন। সুবিশাল রাজপ্রাসাদ, তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নানা ধরণের মূর্তি৷ এছাড়া আরও অনেক কিছুই থাকছে মণ্ডপসজ্জায়।

আরও পড়ুন: বাঁকুড়ায় প্রশাসনের উদ্যোগে পোড়া মাটির হাট

পুজো উদ্যোক্তারা জানান, গত ৬ আগস্ট বিকেলে খুঁটি পুজোর মধ্যে দিয়ে পুজো মণ্ডপের সূচনা হয়েছিল। জে রোড বেলগাছিয়া ছাত্র মিলন সংঘের নতুন চিন্তাধারায় তৈরি মণ্ডপ এবার পুজোয় এক নতুন রূপ পেয়েছে। নতুন পরিকল্পনা ও চিন্তাধারার এক অভিনব মিশ্রণ রূপ পেয়েছে এই পূজামণ্ডপে। প্রতি বছরের মতো এই বছরও আমাদের পুজোমণ্ডপ দর্শনার্থীদের কাছে আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।

আরও পড়ুন: আগামিদিনে রাফায়েলই হবে ‘গেম চেঞ্জার’: বায়ুসেনা প্রধান

পুজো কমিটির চেয়ারম্যান মেয়র পারিষদ ভাস্কর ভট্টাচার্য জানান, মণ্ডপের আকর্ষণীয় দিক হল মণ্ডপের নিখুঁত হস্তশিল্প। মণ্ডপের আকর্ষণ বাড়াতে থাকছে সুবিশাল একটি রথ এবং একটি বাহুবলীর মূর্তি। আমাদের পুজো মণ্ডপ ও তার চারপাশের পরিবেশ চন্দননগরের আলোকসজ্জায় সুসজ্জিত করা হচ্ছে। কৃষ্ণনগরের শিল্পীর তৈরি প্রতিমাও এইবার দর্শনার্থীদের নজর কাড়বে।

ক্লাব সদস্য শুভজিৎ কর জানান, থার্মোকল, আর্ট পেপার, পেন্টিং রং সহ বহুবিধ উপকরণের সাহায্যে তৈরি হচ্ছে এই মণ্ডপ। বাহুবলী-২ এর মাধ্যমে আমরা দর্শনার্থীদের কাছে যুগে যুগে দেবী মায়ের পৃথিবীতে আবির্ভাব ঘটেছিল নানা রূপে এই পৌঁছে দিতে চাই৷

আরও পড়ুন: এসবিআই কার্ড ব্যবহার করেন? অনেক টাকার ক্ষতি হতে পারে কিন্তু

দেবী দুর্গার একটি অসাধারণ ক্ষমতাশালী রূপ তুলে ধরা হচ্ছে আমাদের পুজো মণ্ডপে। মণ্ডপের সমগ্র চিন্তাধারা কল্যাণ পালের। প্রতিমার রূপদান করছেন শিল্পী কাশীনাথ পাল। এই পুজো যে এইবার দর্শনার্থীদের নজর কাড়বে হলফ করে তা বলাই যায়।

আরও পড়ুন: বিশ্বে ছ’জনের মধ্যে মোদীও পেলেন এই সর্বোচ্চ সম্মান