ব্যক্তিগত জিনিস যাতে বাইরে প্রকাশ না হয়ে যায় বা নিজের ফোনের কোনও গোপনীয় তথ্য অন্য কারও হাতে চলে না যায় সেই জন্য সুরক্ষা দিতে তৈরি আছে হাজার অ্যাপ। একজন স্মার্টফোন ইউজার শুধুই ফোনের সুরক্ষার জন্য বিভিন্ন অ্যাপ ব্যবহার করেন না। বিভিন্ন প্রয়োজনে ইউজাররা নানা ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করছে এখন।

এবার আর শুধু তথ্যই সুরক্ষিত থাকবে না এবার বাজারে আসতে চলেছে নয়া এক অ্যাপ। এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন আপনার বাচ্চার মনের অবস্থা ও তার অনুভূতি। গবেষনায় এমনই এক তথ্য তুলে ধরেছে নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষক। গবেষনায় উঠে এসেছে এক নয়া আবিষ্কারের কথা।

নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা এলিজাবেথ মিন্স বলেছেন, বাচ্চাদের মনের অবস্থা ভাব অনুভূতি সব কিছুই একজন মা বুঝতে চাই। কিন্তু এই চাওয়া সব সময় সফল হয়ে উঠে না, নানারকম অবস্থার জন্য। কিন্তু এবার থেকে নতুন মায়েরা তাঁদের বাচ্চার বিভিন্ন সময়ের বিভিন্ন অনুভূতি বুঝতে পারবেন। এর জন্য তাঁদের গবেষকটিম স্মার্টফোনের জন্য একটি নতুন রকমের অ্যাপ আনতে চলেছে।

বাচ্চার মনের অনুভূতি মাকে জানাতে সক্ষম এই অ্যাপটির নামকরন করা হয়েছে বেবি অ্যাপ। জানা গিয়েছে, এই অ্যাপটি মায়েরা তাদের স্মার্ট ফোনে ডাউনলোড করে নিলে এর সাহায্যে তারা সহজেই জানতে পারবে তাদের বাচ্চারা কি ভাবছে বা কি অনুভব করছে। যারা নতুন মা হয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে এই অ্যাপটি খুবই সাহায্যকারি হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এছাড়াও এই নতুন অ্যাপটি বাচ্চার বাবা-মাকে তার শিশুর মানসিক বিকাশ সম্পর্কেও একদম সঠিক তথ্য জানাবে। প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে রোজই নতুন নতুন অ্যাপ বাজারে আসছে, যেগুলির ব্যবহার অনেক সোজা এবং দামও সাধ্যের মধ্যে যা একেবারে গভীর ভাবে জড়িয়ে আছে মানুষের জীবন যাত্রার সঙ্গে। নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানিয়েছেন এবার সব অ্যাপকে পিছনে ফেলে বাজারে আসতে চলেছে নতুন বেবি অ্যাপ। যা খুব সহজেই বাচ্চার ভাবনা অনুভূতি তাঁর মাকে জানাতে সক্ষম।

অ্যাপটির কার্যক্ষমতা নির্ণয়ের জন্য গবেষকরা একদল মায়েদের বাছেন যারা নতুন মাতৃত্বের স্বাদ পেয়েছেন এবং যাদের বাচ্চার বয়স ৬ মাসের মধ্যে, সেই সব মায়েদের এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষা মূল্যায়নের পর গবেষকরা দেখিয়েছেন, এই অ্যাপ ব্যবহারকারী মায়েরা কতটা তাদের বাচ্চার অনুভূতি সম্পর্কে সঠিক জানতে পারছেন। এর আগেও মিন্স তাদের গবেষনায় দেখিয়েছেন যে, যে সব নতুন মায়েরা এই বেবি অ্যাপটি ব্যবহার করেছেন তারা তাদের বাচ্চার অনুভূতি আবেগ উত্তেজনা সম্পর্কে অনেক বেশি সচেতন। যে গুলি অ্যাপ ব্যবহার না কারি মায়েরা জানতে অসমর্থ।