স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দিদির দুধেল গরুদের তান্ডবের সাথে পুর-কমিশনারের কি সম্পর্ক? হাওড়ার পুর কমিশনারের বদলির পর এভাষাতেই রাজ্য প্রশাসনকে খোঁচা দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। ফেসবুক পোস্টে বাবুল লিখেছেন, ‘এতো বড় রঙ্গ জাদু, এতো বড় রঙ্গ ’ দিদির দুধেল গরুদের তান্ডবের সাথে পুর-কমিশনারের কি সম্পর্ক?নাকি ‘চাল-ডাল’ মে কুছ অউর কালা হ্যায়?? #TMchhi নেতাদের ‘চাল-ডাল-চুরি’ আটকাতে যাননি তো?’

মঙ্গলবার হাওড়ার টিকিয়াপাড়ায় বেলিলিয়াস রোডে ঘটনার রাতেই সরিয়ে দেওয়া হয় পুর কমিশনার বিজিন কৃষ্ণাকে। এদিন রাত ১১ টা নাগাদ নবান্নের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানানো হয় যে, হাওড়ার অতিরিক্ত জেলাশাসক ধবল জৈন আপাতত পুর কমিশনার পদের দায়িত্বও সামলাবেন। পুলিশ জানিয়েছে, এদিনের ঘটনায় চার পুলিশ কর্মী জখম হয়েছেন। স্থানীয় দুই মহিলাও আহত হয়েছেন।

তাণ্ডবের ঘটনার সঙ্গে যুক্ত সবাইকে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতার করা হবে বলেও জানিয়েছে পুলিশ। উল্লেখ্য, লকডাউন কার্যকর করতে গিয়ে হাওড়ার টিকিয়াপাড়ার কন্টেনমেন্ট জোন বেলিলিয়াস রোডে রাস্তায় নামা জনতাকে নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে আক্রান্ত হল পুলিশ। এই ঘটনায় দুই পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। ভাঙচুর করা হয়েছে পুলিশের দুটি গাড়ি। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার হয়েছে ছ’জন।

এদিকে, মঙ্গলবার সন্ধ্যাতেই রাজ্য পুলিশের তরফে টুইট করে জানানো হয়েছিল, টিকিয়াপাড়ায় পুলিশের উপর আক্রমণের ঘটনায় দোষিদের কাউকে ছাড়া হবে না। আক্রমণকারীদের চিহ্নিত করে শাস্তি দেওয়া হবে। রাজ্য পুলিশের সেই টুইট পরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও রিটুইট করেন। যার মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রী বুঝিয়ে দেন, তিনিও কড়া পদক্ষেপ চাইছেন। এর পরই রাতে ধরকাকড় শুরু হয়।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ