মুম্বই: যে কোনও মানুষের কাছে রাস্তাঘাটের জ্যাম একটা ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা। রাস্তাঘাটে বেরিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা জ্যামে আটকাননি এই ধরনের মানুষ দেখা পাওয়া দুষ্করই নয় অসম্ভবও বটে। জ্যামে আটকে সময় নষ্ট প্রায় সবারই হয়ে থাকে। বিশেষ বিশেষ সময়ে তো জ্যামের অভিজ্ঞতা নরকযন্ত্রণার থেকে কোনও অংশে কম হয় না। তাই সাধারণ মানুষজন হাতে কিছু সময় নিয়েই রাস্তাঘাটে বেরোন যাতে যন্ত্রনাদায়ক জ্যামের থেকে কিছুটা হলেও রেহাই পাওয়া যায়।

সেই তালিকায় যোগ হলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এমনিতেও মুম্বইয়ের জ্যাম বেশ ভয়ঙ্কর। সম্প্রতি মুম্বইতে জ্যামে আটকে গেলেন কেন্দ্রের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। মুম্বই বিমানবন্দরে যাওয়ার পথে জ্যামে আটকে গেলেন তিনি। নিজের সরকারি গাড়ি ছেড়ে মুম্বই শহর ঘুরলেন অটোতে। মনে ফিরল পুরনো স্মৃতি। তিনি তাঁর টুইটারে ভিডিও পোস্ট করে সেই অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন।

বাবুল সুপ্রিয় ভিডিও শেয়ার করে বলেছেন “আমার সরকারী গাড়ি জ্যামে আটকে গিয়েছে। তাই সেই সুযোগে অটোতে বসে স্মৃতি হাতড়ে বেড়ালাম এই শহরে, যেখানে স্ট্রাগলের সময়ে বহুবার অটোতে চেপেছি।”

আরও জানিয়েছেন তিনি মুম্বাই(সেইসময়ের বম্বে) তে প্রথম অটোতে চড়েন ১৯৯২ সালে এবং সেই মুহূর্ত তিনি উপভোগ করেছিলেন। ভিডিওটিতে একটি গানও গেয়েছেন বাবুল- ‘মেরা রিক্সা সবসে নিরালি।’

ভিডিওটি বন্ধ করার আগে তিনি বার্তা দিয়ে জানিয়েছেন ‘হ্যাপি রিক্সাইং। এটা একটা অন্যরকম অভিজ্ঞতা। মুম্বাইয়ের অটো সবসময়ের জন্য দারুন। ধন্যবাদ।’ অর্থাৎ তার ভিডিও দেখে এটুকু বোঝা গিয়েছে যে জ্যামে আটকে পড়লেও বিরক্ত হন নি বাবুল সুপ্রিয়। বরং এই মুহূর্তটাকে তিনি বেশ আনন্দের সঙ্গেই উপভোগ করেছেন।

২০১৪ সালে বাবুল সুপ্রিয় বিজেপির টিকিটে আসানসোল থেকে নির্বাচনে লড়েন। বর্তমানে তিনি কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী। রাজনীতিতে আসার আগে তিনি তাঁর গান দিয়ে দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন। তবে রাজনীতিতে আসার পরেও তিনি সিনেমা তে অভিনয় করেছিলেন। তাঁর এই ভিডিও প্রায় ১২০০০বার শেয়ার করা হয়েছে এবং ২০০০ লাইক পেয়েছে। অর্থাৎ বোঝাই গিয়েছে ভিডিওটি আপলোড হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়েছে। অনেকেই কমেন্টে লিখেছেন, ‘Great Sir’ কিংবা ‘Love U Sir’. এমনিতেই বাবুলের ফয়ন ফলোয়ারের কমতি নেই। তাঁর এই উদ্যোগ তাঁকে আরও বেশি জনপ্রিয় করে তুলেছে।