স্টাফ রিপোর্টার, মেমারি: যে সমস্ত পুলিশ অফিসারদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের উপর অত্যাচারের অভিযোগ উঠছে, তাঁদের তালিকা রেখে দিচ্ছেন বলে দাবি করলেন বাবুল সুপ্রিয়। বৃহস্পতিবার পূর্ব বর্ধমানের মেমারির মহেশডাঙা ক্যাম্পের বিজেপির নির্বাচনী জনসভায় একথা বলেন তিনি।

কেন্দ্রে মোদী সরকারের এই মন্ত্রীর বক্তব্য, “আমার কাছে ছোট লাল ডাইরি আছে। তাতে সব নাম লিখে রেখেছি। যেসমস্ত পুলিশ অফিসার মানুষের ওপর অত্যাচার করছে তাঁদের সব নাম লেখা রয়েছে। চুনচুনকে মারেঙ্গে। ভুল বুঝবেন না। বিজেপি বোমা, ভোজালি শিল্পে বিশ্বাসী নয়। তাঁদের ভাতে মারা হবে। আসল বাঘগুলিকে নিয়ে এসে, ছাগলগুলোকে জঙ্গলে পাঠানো হবে।”

কেন তিনি এমন বলছেন, তারও ব্যাখ্যা দিয়েছেন বাবুল। বলেছেন, পুলিশ এখন দুষ্কৃতীদের অংশ হয়ে গিয়েছে।

এদিনের জনসভায় তৃণমূল কংগ্রেস ও রাজ্য সরকারের সমালোচনা করেন তিনি। রাজ্য সরকার কীভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্পগুলিকে নিজের নামে চালাচ্ছে, সেই বিষয়ে তথ্য তুলে ধরেন তিনি। সেখানেও তৃণমূল দুর্নীতি করছে বলে বাবুলের অভিযোগ। তাঁর কটাক্ষ, “মানুষের মগজে, মনে, মনুষ্যত্বে পোকা লেগে যায় যখন, তখন বলতেই হয়, রেখেছো তৃণমূল করে, মানুষ করনি।”

তাই দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যাঁরা সামিল হচ্ছেন, তাঁদের বিজেপিতে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

একই সঙ্গে বাবুলের দাবি, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হিসাবে তিনি তাঁর নির্বাচনী এলাকায় কাজ করতে চেয়েছেন। কিন্তু তাঁকে জমি দেওয়া হয়নি। আসানসোলে একাধিক বাসস্ট্যান্ড, কমিউনিটি হল করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কেন্দ্র থেকে অনুমোদনও পেয়েছেন। কিন্তু কোথাও জমি দেওয়া হয়নি। তিনি বলেন, “জনসাধারণকে জানাতে তাই সেই সমস্ত তালিকা এলাকায় টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছে, যাতে মানুষ ভুল না বোঝেন তাঁকে।”

এদিন এই জনসভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিজেপির জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী, দলীয় পর্যবেক্ষক অনল বিশ্বাস-সহ এলাকার বিজেপি প্রার্থীরাও। এদিন দেবীপুর থেকে মাছবাজার থেকে মহেশডাঙা ক্যাম্প পর্যন্ত একটি মিছিলও সংগঠিত করে বিজেপি।