নয়াদিল্লি: বিজেপি নেতা প্রয়াত অরুণ জেটলির শেষকৃত্যে নিগমবোধ ঘাটে এসে বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়, পতঞ্জলির মুখপাত্র এস.কে তিজারিওয়ালা-সহ কিছু সাংসদের ফোন খোয়া গেল।

এই দুই সাংসদ-সহ মোট ১১ জন সাংসদ যারা অরুণ জেটলির শেষকৃত্যে উপস্থিত ছিলেন অত্যধিক ভিড় থাকার কারণে তাঁদের ফোন খোয়া গিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে৷ অত্যধিক ভিড়ের কারণে চোরের পক্ষেও ফোন লোপাট করা বেশ সুবিধাজনক ছিল।

মি.তিজারিওয়লা টুইটারে জানান তাঁর এবং আরও ১০জনের আগের সন্ধেবেলাতে ফোন গুলি হারিয়ে যায়। তিনি আরও জানান আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র ফোনও হারিয়ে যায়। তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পাশাপাশি দিল্লি পুলিশকে এই বিষয়ে জানিয়েছেন।

তাঁরা যখন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর উদ্দেশে শেষ সম্মান জানাচ্ছিলেন এবং অন্তিম মুহূর্তটি যখন ফোনের ক্যামেরা বন্দী করে রাখছিলেন সেই সময়েই বাকি ফোন গুলি চুরি করার পক্ষে সুবিধাজনক ছিল৷ কেননা সকলের মন তখন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর শেষযাত্রার দিকে ছিল বলেও জানিয়েছেন তিনি।

তেজারিওয়ালা তার ফোনের বর্তমান লোকেশনটিও জানিয়েছেন টুইট করে। পুলিশ জানিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়-সহ ৫ জনের থেকে অভিযোগ পেয়েছেন। এবং তার উপর ভিত্তি করে তাঁরা দ্রুত পদক্ষেপ নেবেন।