কলকাতা: নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে বিজেপিবিরোধী দলগুলির পাশাপাশি পথে নেমেছেন দেশের বিশিষ্টজনেরাও। একইভাবে কেন্দ্র বিরোধিতায় সামিল দেশের ছবির কলাকুশলীদের একাংশ। বলিউডের পাশাপাশি নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় সরব টলিউডও। টলিউডের একঝাঁক কলাকুশলী নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে একটি ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন। বাংলার শিল্পীদের পোস্ট করা ওই ভিডিও বেশ ভাইরালও হয়েছে। সেই ভিডিও প্রসঙ্গেই এবার ফেসবুকে পালটা পোস্ট বাবুলের। শিল্পীদের আশ্বস্ত করে লিখলেন, ‘ধুর বাবা – কি মুশকিল! কাগজ কেউ চাইবেই না !!! কীসের কাগজ? কেন চাইবে? আপনারা কি শরণার্থী ? CAA -টা আসলে কী সেটা তো বুঝতে হবে আগে। তবে ভিডিওটা ভালো হয়েছে – congrats।’

‘কাগজ আমরা দেখাব না’, সম্প্রতি এনআরসি ও সিএএ বিরোধিতায় সোশাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেন বাংলার শিল্পীরা। সব্যসাচী চক্রবর্তী, রূপম ইসলাম, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, মনোরঞ্জন ব্যাপারি, ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়, কঙ্কণা সেনশর্মা, নন্দনা দেবসেন প্রত্যেকের মুখেই একই কথা। ‘কাগজ আমরা দেখাব না’।

সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট হওয়ার পরই মুহূর্তে ভাইরাল হয় ভিডিওটি। একের পর এক কমেন্ট, লাইক, শেয়ার চলে পোস্টটি ঘিরে। সেই পোস্ট প্রসঙ্গেই এবার ফেসবুকে প্রতিক্রিয়া আসানসোলের বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র। নিজের বক্তব্যের পাশাপাশি বাংলার শিল্পীদের তৈরি ওই ভিডিওটি যে তাঁরও বেশ ভালো লেগেছে তা জানাতেও দ্বিধাবোধ করেননি বিজেপির তারকা সাংসদ।

নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসির প্রতিবাদে অবিজেপি দলগুলি প্রথম থেকেই প্রতিবাদে সরব। ইতিমধ্যেই পশ্চিমঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন তাঁদের রাজ্যে কোনওভাবেই নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি তাঁরা কার্যকর করবেন না। দুই মুখ্যমন্ত্রীও নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি বাতিলের দাবি জানিয়েছেন। এছাড়াও কংগ্রেস শাসিত একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও কেন্দ্রের ওই দুই আইন নিয়ে তীব্র আপত্তি জানিয়েছেন।

রাজনৈতিক দলগুলির পাশাপাশি নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি নিয়ে কেন্দ্র-বিরোধিতায় সরব দেশের বিশিষ্টজনেদের একাংশ। কখনও পথে নেমে কখনওবা সোশাল মিডিয়া বা অন্য সংবাদমাধ্যমে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে নিজেদের বক্তব্য জানাচ্ছেন বিশিষ্টরা। নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে এর আগেও কলকাতার রাস্তায় মিছিল করেছেন বিশিষ্টদের একাংশ। পথে নেমে প্রতিবাদ জানিয়েছেন অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন, ঋদ্ধি সেন, অঞ্জন দত্ত, ঋতব্রত মুখোপাধ্যায়-সহ আরও অনেকে। প্রকাশ্যে কেন্দ্রীয় সরকারেরও কড়া সমালোচনা করেছেন তাঁরা।