চণ্ডীগড়: হিন্দু মতে সাত পাকে বাঁধা পড়ার রীতি থাকলেও বিয়ের পিঁড়িতে আট পাক নিলেন ‘দঙ্গল কন্যা’ ববিতা ফোগত৷ কমনওয়েলথ গেমেসে সোনা জয়ী ভারতীয় এই মহিলা কুস্তিগীর রবিবার নিজের গ্রাম বালালিতে দীর্ঘদিনের বন্ধু বিবেক সুহাগকে জীবন সঙ্গী হিসেবে বেছে নেন৷

বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগে সাত পাকের পরিবর্তে আট পাকে বাঁধা পড়েন ববিতা৷ ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ স্লোগানের সমর্থনে বিয়ের সময় হিন্দু রীতির বিরুদ্ধে গিয়ে আট পাক নেন ভারতীয় এই কুস্তিগীর৷

আমির খানের ‘দঙ্গল’ সিনেমার জন্য হরিয়ানার ফোগত-বোনদের লড়াইয়ের কাহিনি এখন ভারতীয় ক্রীড়ামহলে পরিচিত। দীর্ঘদিনের বন্ধু কুস্তিগীর বিবেক সঙ্গে তাঁর বিয়ে প্রচারে আনতেই এক পাক বেশি ঘুরেছেন বলে জানান ববিতা। দেশের নানা জায়গায় এখনও শিশুকন্যাদের পড়াশোনা শেখানো হয় না। দ্রুত বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয়। এই সব ব্যাপারেই প্রতিবাদ জানিয়ে এই পদক্ষেপ বলে জানান ভারতীয় এই মহিলা কুস্তিগীর৷ ববিতা। এই কারণে গত বছরও বিয়ের সময় প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন ববিতার আর এক কুস্তিগীর বোন বিনেশ ফোগতও।

বিয়ের আসরে ববিতা পড়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মতো লাল রংয়ের লেহেঙ্গা৷ গ্রামের বাড়িতে বিয়ের পর ববিতাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানান অনেকেই৷ শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছেন দিদি গীতা ফোগতও। টুইট করেছেন আমির খানও।

২০১৪ সালে কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জেতেন ববিতা। চার বছর পর কমনওয়েলথে রুপো জেতেন তিনি। সদ্য রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন ববিতা। হরিয়ানার বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হয়ে লড়েছিলেন। কিন্তু জিততে পারেননি৷ ববিতার মতো তাঁর বোন গীতাও পরিচিত কুস্তিগীর৷