ম্যাঞ্চেস্টার: করোনা আবহেই বুধবার ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট সিরিজ খেলতে নেমেছে পাকিস্তান৷ ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের পর এটি করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে দ্বিতীয় টেস্ট সিরিজ৷ এই সিরিজের প্রথম দিনেই নজির গড়লেন পাক ব্যাটসম্যান বাবর আজম৷ টানা পাঁচ ইনিংসে পঞ্চাশর্ধ্বো স্কোর করে কিংবদন্তি জহির আব্বাস, ইনজামাম উল হককে ছুঁয়ে ফেললেন প্রতিশ্রুতিমান এই ব্যাটসম্যান৷

বাবর হলেন বিশ্বের একমাত্র ব্যাটসম্যান, যার আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ১০০ বেশি গড় রয়েছে। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে প্রতিশ্রুতিময় পাক ব্যাটসম্যান ৫টি ম্যাচে চারটি সেঞ্চুরি-সহ ৬১৫ রান করেছেন৷ গড় ১০২.৫০৷ এই মুহূর্তে বিশ্বের আর কোনও ব্যাটসম্যান ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে এত বেশি গড় নেই৷

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে বাবরের ব্যাট লড়াইয়ে ফেরে পাকিস্তান৷ লাঞ্চের আগে পাকিস্তানের রান ছিল দু’ উইকেটে ৪৮৷ কিন্তু বাবর ও ওপেনার শন মাসুদের ব্যাটে ম্যাচে ফের পাকিস্তান৷ বৃষ্টিতে ম্যাচ বন্ধ হয়ে যাওয়া পর্যন্ত দু’ উইকেটে ১২১ রান তুলেছে পাকিস্তান৷ ৭১ বলে ৫২ রানে ক্রিজে রয়েছেন বাবর এবং ৪৫ রানে ব্যাটিং করছেন মাসুদ৷ প্যাভিলিয়নে ফিরে গিয়েছেন আবিদ আলি ও আজহার আলি৷ আবিদ ব্যক্তিগত ১৬ এবং আজহার শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন৷

ক্রিস ওকস এবং জোফরা আরচারের বিরুদ্ধেও বুক চিতিয়ে লড়াই করেন বাবর৷ আর্চারে স্টাম্পে বল রেখে ক্রমাগত আক্রমণ শানাতে থাকে৷ বল এয়ারে সুইং করলে বাবরকে অস্থায়ী মনে হয়েছিল৷ তাঁর কমপ্যাক্ট ডিফেন্স সত্ত্বেও বারবার প্রতিহত থাকেন এই পাক ব্যাটসম্যান৷

লাঞ্চের পর বাবরের লড়াই হয় জেমস অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে৷ এই দ্বৈরথ দেখার জন্য মুখিয়ে ছিলেন বিশেষজ্ঞরাও৷ টাইমিংয়ের জন্য লড়াই করতে থাকা ব্যাটসম্যানের বিরুদ্ধে মানসিক সুবিধা পাচ্ছিলেন অ্যান্ডারসন৷ অনিশ্চয়তার করিডোরে তাঁকে পরীক্ষা করার পরিবর্তে, ৩৬ বছর বয়সি ইংল্যান্ড পেসার প্যাডে লুজ ডেলিভারি করতে থাকে৷ সেগুলি বাউন্ডারিতে পাঠান বছর পঁচিশের পাক ব্যাটসম্যান৷

এই ভাবেই লড়াই করে হাফ-সেঞ্চুরির গণ্ডি টপকে যান বাবর৷ এ নিয়ে টানা পাঁচ ইনিংসে পঞ্চাশর্ধ্বের স্কোর করে ছুঁয়ে ফেলেন দেশের কিংবদন্তি ব্যাটস্যানদের৷ সপ্তম পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান হিসেবে এই নজর গড়েন বাবর৷ সেই সঙ্গে এই লিগে জহির আব্বাস, সইদ আনোয়ার, ইনজামাম উল হক, মিসবা উল হক, মহম্মদ ইউসুফ এবং সরফরাজ আহমেদকে ছুঁয়ে ফেলেন৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা