প্যারিস: ব্যতিক্রমী পরিমন্ডলে কোভিড আবহে নির্দিষ্ট সময়ের থেকে বেশ কয়েকমাস দেরিতে শুরু হল ফরাসি ওপেন। দর্শকহীন গ্যালারির সামনে প্রতিকূল আবহাওয়া প্রথমদিন বেশ বিপাকে ফেলল প্রতিযোগীদের। সাধারণত বছরের মে-জুন উইন্ডোয় ফরাসি ওপেন হলেও কোভিডের কারণে চলতি বছর কিছুটা পিছিয়ে শুরু হয়েছে রোলা গ্যারোঁ। স্বাভাবিকভাবেই সেপ্টেম্বরের শেষে প্যারিসের আবহাওয়ার সঙ্গে পরিচিত নন প্রতিযোগীরা। তাই চলতি টুর্নামেন্ট শুরুর দিন আবহাওয়ার সঙ্গে খাপ খাওয়াতে না পেরে কোর্ট ছাড়তে হল ইউএস ওপেনের ফাইনালিস্ট ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কাকে।

যদিও পরে ফিরে এসে সহজেই স্ট্রেট সেটে ম্যাচ জিতে নিলেন বেলারুশের ‘সুপার মম’। টুর্নামেন্টের দশম বাছাই আজারেঙ্কা এদিন প্রথম রাউন্ডে মুখোমুখি হয়েছিলেন বিশ্বের ৭৪ নম্বর মন্টেনেগ্রোর ডাঙ্কা কোভিনিচের বিরুদ্ধে। তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে সেইসঙ্গে বৃষ্টির জেরে ঠান্ডা হাওয়া। সবমিলিয়ে এমন আবহাওয়ার সঙ্গে অনভ্যস্ত আজারেঙ্কা ম্যাচ শুরু হওয়ার ১৫ মিনিটের মধ্যেই এদিন কোর্ট ছাড়েন। প্রথম সেটে ২-১ ব্যবধানে যখন এগিয়ে আজারেঙ্কা তখন প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায় খেলা।

কোর্ট ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার আগে অভিযোগের সুরে আজারেঙ্কা জানান, ‘এখানে ভীষণ ঠান্ডা। আমি ফ্লোরিডায় থাকি। সেখানকার আবহাওয়া বেশ গরম। এই ঠান্ডায় কোর্টে বসে থাকার কোনও অর্থই হয় না। আমরা জবুথুবু হয়ে যেন পাতিহাসের মতো বসে আছি।’

যাইহোক পরে কোর্টে ফিরে এসে ঠান্ডা মাথায় ম্যাচ বের করে নিয়ে যান আজারেঙ্কা। ৬-১, ৬-২ ব্যবধানে এক ঘন্টার সামান্য বেশি সময় নিয়ে মন্টেনেগ্রো প্রতিদ্বন্দ্বীকে পরাস্ত করেন প্রাক্তন বিশ্বের এক নম্বর। যদিও প্যারিসের ঠান্ডায় জবুথুবু আজারেঙ্কা লেগিন্স এবং ট্র্যাকস্যুট পরেই বাকি সময়টা কোর্টে কাটান। তবে কোর্টে ফিরে তাঁর পারফরম্যান্সে বিশেষ প্রভাব কিন্তু পড়েনি। প্রথম সেট ৬-১ ব্যবধানে জিতে নেওয়ার পর দ্বিতীয় সেটে মাত্র মাত্র ২টি গেম হাতছাড়া করেন বেলারুশিয়ান। সহজেই দ্বিতীয় রাউন্ডে পা রাখেন তৃতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের লক্ষ্যে প্যারিসে পা রাখা আজারেঙ্কা।

দ্বিতীয় রাউন্ডে দু’বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন মুখোমুখি হবেন আন্না ক্যারোলিনা স্কেমিডলোভার। যিনি প্রথম রাউন্ডে ৪০-এর ভেনাস উইলিয়ামসকে ৬-৪, ৬-৪ ব্যবধানে পরাস্ত করেছেন। প্রথম রাউন্ডের অন্য ম্যাচে সহজেই জয় তুলে নিয়েছেন টুর্নামেন্টের প্রথম বাছাই তথা ২০১৮ রোলা গ্যারোঁ চ্যাম্পিয়ন রোমানিয়ার সিমোনা হালেপ। বিশ্বের ৭০ নম্বর স্পেনের সারা সোরিবেস তোর্মোকে ৬-৪, ৬-০ ব্যবধানে পরাজিত করেছেন তিনি।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।