নয়াদিল্লি: অন্তর্বতী বাজেট পেশ করতে গিয়ে ভারপ্রাপ্ত অর্থমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের বক্তব্যে উঠে এল স্বাস্থ্য খাতের প্রসঙ্গ৷ উঠে এল আয়ুষ্মান ভারতের উল্লেখও৷ শুক্রবার বাজেট পেশ করতে গিয়ে গোয়েল বলেন বিশ্বের সর্ববৃহৎ স্বাস্থ্যবিমা নিয়ে এসেছে মোদী সরকার৷ আয়ুষ্মান ভারতের আওতায় ইতিমধ্যেই ১০ লক্ষ মানুষকে নিয়ে আসা গিয়েছে৷ স্বাস্থ্য খাতে যে বিপুল খরচ হয় সাধারণ মানুষের, তার বোঝা কমিয়েছে কেন্দ্র সরকার৷

দায়িত্বপ্রাপ্ত অর্থমন্ত্রী এদিন বাজেট পেশ করতে গিয়ে বলেন প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য অভিযান প্রকল্পে ৫০ কোটি মানুষ উপকৃত হয়েছেন৷ যেখানে পরিবার পিছু গুরুতর অসুখের ক্ষেত্রে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিমার সুবিধা পাবেন দরিদ্ররা৷ এছাড়াও স্বাস্থ্য খাতে মধ্যবিত্ত ও দরিদ্রদের চিকিৎসার খরচের বোঝা অনেকাংশে কমানো হয়েছে৷ এছাড়াও জন ঔষধি কেন্দ্র থেকে অনেক কম খরচে জীবনদায়ী ওষুধ দেওয়া হচ্ছে৷

পীযূষ গোয়েল এদিন বলেন হৃদরোগের চিকিৎসা, হাঁটু প্রতিস্থাপনের মত বেশ কয়েকটি খাতে চিকিৎসার খরচ মধ্যবিত্তের সাধ্যের মধ্যে নিয়ে আসা হয়েছে৷ তিনি আরও বলেন ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার সময় ২১টি এইমসের ঘোষণা করেছিল মোদী সরকার৷ যেখানে ইতিমধ্যেই ১৪টি এইমস তৈরি করা হয়ে গিয়েছে৷

২০১৯ সালের অন্তর্বতী বাজেটে ২২ তম এইমস তৈরির কথা ঘোষণা করলেন অর্থমন্ত্রী৷ এই এইমস তৈরি করা হবে হরিয়ানায়৷ অর্থমন্ত্রী মনে করিয়ে দিয়েছেন প্রায় দেড় লক্ষ প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও পরিচর্যা কেন্দ্র তৈরি করা হয়েছে৷ যেগুলির উন্নতি সাধন করে ২০২২ সালের মধ্যে উন্নত স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পরিণত করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে৷ সারা দেশ জুড়ে মোট ৪৫০৩টি হেল্থ কেয়ার সেন্টার চালাচ্ছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক৷