ঢাকা: একদিকে যেখানে উৎসবের আমেজে মাতোয়ারা সকলে৷ সেখানে বৃহস্পতিবার সকালে ছন্দপতন৷ চলে গেলেন কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী-গিটারিস্ট আয়ুব বাচ্চু৷ বৃহস্পতিবার সকাল ৯.১৫ মিনিট নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি৷ একাধারে এই গায়ক, গিটারিস্ট, গীতিকার, সুরকার আয়ুব বাচ্চুর বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর।

বাংলাদেশের এলআরবি ব্যান্ডের লিড গিটারিস্ট ও ভোকালিস্ট আয়ুব বাচ্চু হঠাৎই অসুস্ত হয়ে পড়েন৷ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন৷ তাঁর প্রয়াণে শোকের ছায়া ভক্তমহলে৷

১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমান বাংলাদেশ) চট্টগ্রাম জেলায় জন্মগ্রহণ করেন।এল আর বি ব্যান্ড দলের লিড গিটারিস্ট এবং ভোকালিস্ট বাচ্চু বাংলাদেশের ব্যান্ড জগতের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সম্মানিত ব্যক্তিত্বদের একজন। সঙ্গীতজগতে তাঁর যাত্রা শুরু ১৯৭৮ সালে।

১৯৯১ সালে বাচ্চু এল আর বি ব্যান্ড গঠন করে। এই ব্যান্ডের সাথে তার প্রথম ব্যান্ড অ্যালবাম এল আর বি প্রকাশিত হয় ১৯৯২ সালে। এটি বাংলাদেশের প্রথম দ্বৈত অ্যালবাম। এই অ্যালবামের “শেষ চিঠি কেমন এমন চিঠি”, “ঘুম ভাঙ্গা শহরে”, “হকার” গানগুলো জনপ্রিয়তা লাভ করে।

শ্রোতা-ভক্তদের কাছে এবি (AB) নামেও পরিচিত। তাঁর ডাক নাম রবিন। মূলত রক ঘরানার কন্ঠের অধিকারী হলেও আধুনিক গান, ক্লাসিকাল সঙ্গীত এবং লোকগীতি দিয়েও শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মৃত্যু বরণ করেন।