অযোধ্যা: সোমবার সম্প্রীতির নয়া নজির দেখল বাবরি বিধ্বস্ত অযোধ্যা৷ রমজানের পবিত্র মাসে ইফতারের আয়োজন করল অযোধ্যার সীতা রাম মন্দির৷ ধর্মের বেড়াজাল ভেঙে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ মন্দির চত্বরে বসে ইফতার করলেন৷ রোজা ভেঙে চলল খাওয়া দাওয়ার পালা৷

সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের সঙ্গে কথা বলার সময় মন্দিরের প্রধান পুরোহিত যুগল কিশোর জানান, এই নিয়ে তৃতীয় বার ইফতারের আয়োজন করা হচ্ছে এই মন্দিরে৷ ভবিষত্যেও করা হবে৷ প্রত্যেক ধর্মের উৎসব এভাবেই প্রত্যেকের সমান উৎসাহের সাথে পালন করা উচিত৷

মন্দির কর্তৃপক্ষের এই ইফতার আয়োজনের সিদ্ধান্ত রীতিমত খুশি স্থানীয় মুসলিমরা৷ অবশ্য এই নজির নবরাত্রিতেও দেখা যায় অযোধ্যায়৷ স্থানীয় মসজিদে পালন করা হয় নবরাত্রি৷ ধুমধাম করে সব রকম রীতি মেনে নবরাত্রি পালনে হিন্দুদের সঙ্গেই মেতে ওঠেন মুসলিম সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষ৷

ধর্ম এখানে মানুষকে মানুষের থেকে আলাদা করতে পারেনি৷ তারই নজির তৈরি করছেন অযোধ্যার আমজনতা৷ ধর্মের আরেক পিঠে রাজনীতির ছোঁয়াতেই মানুষের বিভেদ তৈরি হয়, তা ভালোই বুঝেছেন তাঁরা৷ তাই অযোধ্যা এখন রামমন্দিরের আশায় বসে নেই৷ একে অপরের সঙ্গে মিশে গিয়ে ক্ষত ভোলার চেষ্টাই করে যাচ্ছেন তাঁরা৷

সীতারাম মন্দিরে প্রতিদিন সন্ধেবেলায় বসছে ইফতার৷ সারাদিন রোজা রেখে সেহরি পালন করছেন মুসলিমরা৷ এই ছবিই বাঁচিয়ে রেখেছে অযোধ্যার রক্তাক্ত বিবেককে৷