নয়াদিল্লি: বাবরি মসজিদ ধ্বংসে অভিযুক্তদের তালিকায় তাঁর নাম রয়েছে। সেই ঘটনার সিকি শতক পেরিয়েও নিজের অবস্থানে অনড় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেত্রী উমা ভারতী।

অযোধ্যার বাবরি মসজিদ সংক্রান্ত মামলার রায় দানের কথা ছিল শুক্রবার। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের ডিভিশন বেঞ্চের সেই রায় দেওয়ার কথা ছিল। যদিও সেই রায় ঘোষণা ওই দিন হচ্ছে না। আগামী মাসের ২৯ তারিখ থেকে রাম জন্মভূমি মামলার শুনানি শুরু হবে সুপ্রিম কোর্টের তিন সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চে।

এই বিষয়েই বৃহস্পতিবার মুখ খুলেছেন উমা ভারতী। অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের স্বপক্ষে এক জোরাল যুক্তি দিয়েছেন মোদীর মন্ত্রী। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের পবিত্র এবং ধর্মীয় তীর্থস্থান হচ্ছে মক্কা, অযোধ্যা নয়। অন্যদিকে রাম জন্মভূমি অযোধ্যা হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র তীর্থক্ষেত্র।

অযোধ্যা নিয়ে বিতর্ক দীর্ঘদিনের। বিভিন্ন সময়ে যা নিয়ে মামলা সুপ্রিম কোর্টে শুনানি হয়েছে। যদিও মেলেনি সমাধান সূত্র। যদিও অযোধ্যার এই মামলাকে ধর্ম সংক্রান্ত বিতর্ক হিসেবে মানতে নারাজ মন্ত্রী উমা। তাঁর কথায়, “অযোধ্যা নিয়ে বিতর্ক ধর্ম সংক্রান্ত নয়।” একই সঙ্গে তিনি আরও বলেছেন, “রাম জন্মভূমি হওয়ার কারণে অযোধ্যা হিন্দু ধর্মের মানুষদের কাছে একটি অত্যন্ত পবিত্র ধর্মীয় তীর্থস্থান।”

কিন্তু অযোধ্যার সঙ্গে ইসলাম ধর্মের কোনও সম্পর্ক নেই বলে দাবি করেছেন বিজেপি নেত্রী উমা ভারতী। মন্ত্রী মহাশয়ার মতে, “অযোধ্যা কখনই মুসলিমদের ধর্মীয় স্থান নয়। তাঁদের জন্য মক্কা রয়েছে।”

অযোধ্যায় রাম মন্দির এবং বাবরি মসজিদ সংক্রান্ত বিতর্ক ইচ্ছাকৃতভাবে সৃষ্টি করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন উমা ভারতী। তাঁর কথায়, “সম্পূর্ণ বিষয়টি কিছু মানুষ ইচ্ছাকৃতভাবে সৃষ্টি করেছে। পরে তা জমি বিবাদে পরিণত হয়েছে।”

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব