বহরমপুর: চলছে গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় উৎসব লোকসভা নির্বাচন। মোট ৭ দফায় এই ভোট যুদ্ধে অংশ নিচ্ছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা। ইতিমধ্যেই কয়েক দফা নির্বাচনও প্রায় শেষ। রাজনৈতিক নেতা থেকে কর্মী সমর্থকেরাও ব্যস্ত সেই ভোট নিয়ে।

আরও পড়ুন- দীর্ঘদিন পরে লাল ঝান্ডার মিছিল দেখল জঙ্গলমহল

বিগত কয়েক বছরে কে কি পেল বা কার কতটুকু উন্নয়ন হল তা নিয়ে মাথাব্যথা নেই কারও, কিন্তু সেই চাওয়া পাওয়া নিয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে এবার পথে নেমে নিজের শিল্পকলার মাধ্যমে অভিনব প্রতিবাদ জানালেন এক চিত্রশিল্পী।

নাম তার সুজিত মণ্ডল, বয়স প্রায় ৩২, মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের বাসিন্দা। সে একজন চিত্রশিল্পী, নিজে একাই উদ্যোগ নিয়ে জিলিপি ভোট নিয়ে সচেতনতার বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছেন সবার কাছে। মাথার উপরে ঝুলছে একটি সুতোয় বাঁধা জিলিপি,তার সাথে একটি সুতো বাধা যেটি আবার তার একপায়ে বাধা। একবার জিলিপিটা তার মুখের কাছে আসছে, আর জখনই সে সেই জিলিপিটা খাওয়ার চেষ্টা করছে ব্যর্থ হচ্ছে। মাথা থেকে তার পা পর্যন্ত গোটা গায়ে জিলিপির প্যাচ আকা। কেন এই প্রতিবাদ? নিজেই জানালেন তার এই প্রতিবাদ নিয়ে।

আরও পড়ুন- ভোটের আগের রাতে ১৫ লক্ষ নগদ উদ্ধার জলপাইগুড়িতে

প্রতিবার নির্বাচন আসে তখন আমাদের মুখের সামনে জিলিপি ঝুলিয়ে দেয় আর আমরা কিছু না বুঝেই সেই জিলিপির লোভে পড়ে সবাই হাসতে হাসতে ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে পরি। কিন্তু ভোট মিটে গেলেই সেই জিলিপি আর পাইনা। কিন্তু জিলিপির আশা আর খিদের যন্ত্রণা সাধারণ মানুষের পিছু আর ছাড়ে না।

তাই নির্বাচনের আগে সাধারণ মানুষকে ভোট নিয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে এই অভিনব উদ্যোগ। জিলিপির ভোটের পিছনে কারণও ব্যক্ত করেছেন শিল্পী সুজিত মণ্ডল, সে জানাচ্ছেন যে কোন ভোটের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা মানুষের কাছে নানা প্রতিশ্রুতি দেন কিন্তু বেশিরভাগ সময় তা হয়ে ওঠে না। সব যেন জিলিপির প্যাচের মতো। তাই এবার ভোট দেওয়ার আগে এই জিলিপির প্যাচ থেকে সাবধান হতে বলছেন এই চিত্রশিল্পী।

এই অভিনব প্রতিবাদে সাধারণ মানুষের সাড়াও মিলছে বেশ ভালোই। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বহরমপুর রবীন্দ্র সদনের সামনে সাংস্কৃতিক মঞ্চে এই প্রতিবাদ জানান চিত্র শিল্পী সুজিত মণ্ডল।