স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাজ্যে যথেষ্ট পরিমাণ টেস্ট হচ্ছে না বলে যখন জোর অভিযোগ উঠেছে তখন কিট নিয়ে কেন্দ্রকে একহাত নিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

কার কার শরীরে রয়েছে জীবাণু তা দ্রুত জানতে একমাত্র উপায় র‌্যাপিড টেস্ট। তাই রাজ্যগুলিকে জরুরি ভিত্তিতে র‌্যাপিড টেস্টের জন্য চাপ দিচ্ছিল কেন্দ্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রক। কিন্তু চিনা টেস্ট কিটগুলি ত্রুটিপূর্ণ বলে বারবার সরব হয়েছে একাধিক রাজ্য। পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য দফতর থেকেও অভিযোগ জানানো হয়েছিল, র‌্যাপিড টেস্টের কিটগুলি ত্রুটিপূর্ণ। নাইসেড সেই অভিযোগ স্বীকার করে নিয়েছে।

তারা জানিয়েছে, কিটের গুনগতমান খারাপ হওয়া দুর্ভাগ্যজনক। মঙ্গলবার ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ থেকে রাজ্যগুলিকে পরামর্শ দেওয়া হল যে, চিন থেকে আমদানি করা র‌্যাপিড টেস্টের কিট দিয়ে করোনা পরীক্ষা আগামী দিন বন্ধ রাখার জন্য।

এই সুযোগেই কেন্দ্রকে আক্রমণ করলেন অভিষেক। কিট ত্রুটিপূর্ণ নিয়ে একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থার টুইটের উত্তরে অভিষেক আক্রমণাত্মক টুইট করেন কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশ্যে। তিনি লেখেন, “একেই তো আপনারা আইসিএমআর- এর তরফ থেকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে ত্রুটিপূর্ণ কিট প্রদান করছেন, অন্যদিকে রাজ্য সরকারকে অন্ধকারে রেখে কেন্দ্রীয় দলকে পাঠিয়ে দিচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাজ পর্যালোচনা করতে।”

তিনি আরও লেখেন, “করোনার লড়াইয়ের নাম করে, আপনারা বাঙালিদের জীবন নিয়ে খেলছেন এবং আপনাদের নেতারা মিথ্যা প্রোপাগান্ডা প্রচার করছেন পরীক্ষার সংখ্যা নিয়ে।”

রাজ্যে প্রতিনিধি দল পাঠানোর জন্য কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “আমরা সব মানছি কেন্দ্র যা বলছে, কিন্তু কাল যা হয়েছে তা অনভিপ্রেত। আশা করব, ওরা এটা বুঝবে।” আরও অভিযোগ করেন, কেন্দ্র শুধু কিছু রাজ্যের সঙ্গে রাজনীতি করছে।

বলেন, করোনা নিয়ে কোনওভাবেই রাজনীতি বরদাস্ত করা হবে না। করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্র-রাজ্য একসঙ্গে কাজ করবে, এটাই কাম্য। পাশাপাশি, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল কেন গুজরাট ও তামিলনাড়ুতে পাঠানো হল না, তাই নিয়েও এদিন প্রশ্ন তুলেছেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে কেন্দ্রীয় দলের আগমনকে কেন্দ্র করে করোনা নিয়ে তৃণমূল-বিজেপি সংঘাতের মাত্রা যে আরও একধাপ চড়ল তা বলাই বাহুল্য।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব