স্টাফ রিপোর্টার, খণ্ডঘোষ: রাজ্যে তৃণমূল জিতলেই কেন্দ্র থেকে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হবে তিন লক্ষ কোটি টাকা। যা গত পাঁচ বছরে রাজ্য থেকে কেটে নিয়েছে মোদী সরকার। নির্বাচনী জনসভায় দাঁড়িয়ে প্রকাশ্যে এই বক্তব্য পেশ করেছেন তৃণমূলের যুবরাজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষের উখরিদ কলেজ মাঠে বিষ্ণুপুর লোকসভার তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরার সমর্থনে সভা করেন অভিষেক। সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে ওই মন্তব্য করেন তিনি। একদা বাম দূর্গ বলে পরিচিত থাকলেও এখন বামেদের সেই উর্বর জমিতে জন্মেছে ঘাস ফুল। সেই ফুল উপরে আবার পদ্মের চাষ শুরু করেছেন অনেকে।

কেন্দ্র সুদ বাবদ রাজ্য থেকে অনেক টাকা কেটে নিচ্ছে। যার কারণে ব্যাহত হচ্ছে রাজ্যের উন্নয়নের কাজ। এই অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই করে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাম জমানার ঋণের বোঝা তৃণমূল সরকার কেন বহন্নকরবে তা নিয়েও প্রশ্ন তোলে ঘাস ফুলের নেতারা। কিন্তু রাজ্য প্রশাসনের দায় সরকারকে নিতেই হবে। কেন্দ্রে যেই সরকারই থাকুক না কেন এই অবস্থার কোনও বদল হবে না বলেও দাবি করে দিল্লি।

আরও পড়ুন- টাইগার হিল জয়ের পরের দিনই সেখানে ছুটে গিয়েছিলেন মোদী

যদিও এই দাবি মানতে নারাক তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের হাত মজবুত হলে মোদী সরকারের বাংলা থেকে কেটে নেওয়া তিন লক্ষ কোটি টাকা ফিরিয়ে আসবেন বলে দাবি করেছেন ডায়মন্ড হারবার কেন্দ্রের বিদায়ী সাংসদ এবং তৃণমূল প্রার্থী। তিনি বলেছেন, “তৃণমূলকে জেতান আর তা হলেই প্রতিবছর নরেন্দ্র মোদি যে ৫০ হাজার কোটি টাকা কেটে নিয়ে যাচ্ছে পাঁচ বছরের সেই ৩ লক্ষ কোটি টাকা ফেরত নিয়ে আসবই। নাহলে আমি বাপের বেটা নই।”

আরও পড়ুন- বড় সাফল্য, কাশ্মীরের একমাত্র আইএস কমান্ডারকে খতম করল সেনা

অভিষেক ওই দিন খণ্ডঘোষের ঘোষের মানুষের উদ্দেশ্যে বলেন, “আপনারা তৃণমূলকে ভোট দিয়ে জেতান।” তিনি বলেন, তিনি বাঁকুড়া জেলায় দলের পর্যবেক্ষক হিসাবে দায়িত্বে রয়েছেন। কিন্তু এদিন থেকে খণ্ডঘোষেরও দায়িত্ব নিচ্ছেন। ওই দিনই বাঁকুড়ায় মোদির সভা নিয়ে বলতে গিয়ে অভিষেক বলেন, আজ কবিগুরুর জন্মদিন। তৃণমূল কংগ্রেস এদিন সকাল থেকে একের পর এক অনুষ্ঠান করলেও কোনও রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেয়নি। কিন্তু সেই বাংলায় এসে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামএ উচ্চারণ করেনি মোদী।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।