অ্যাডিলেড: অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বিরাট ঝড়ের আগে শান্ত কোহলি! টেস্ট সিরিজ শুরু আগেই অজিদের আগ্রাসন নিয়ে মন্তব্য করেছেন ভারত অধিনায়ক৷ কিন্তু টেস্ট সিরিজে বাইশ গজে বল গড়ানোর আগেই অজি মিডিয়ার আক্রমণে সামনে বিরাট অ্যান্ড কোং৷ বৃহস্পতিবার থেকে অ্যাডিলেড ওভালে সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরুর আগে ভারতীয় দলকে The Scaredy Bats বলে ব্যাখ্যা করা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার এক ট্যাবলয়েডে৷ যদিও নিজের দেশের ক্রিকেট লিখিয়ে এবং ফ্যানের কাছে সমালোচিত হয়েছে এই শিরোনাম৷

The Scaredy Bats অর্থাৎ ভীত বাদুরের সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে বিরাটদের৷ রিপোর্টে ভারতীয়দের ব্যাখ্যা হয়েছে এভাবে, India are “scared of the bounce” in Brisbane, “scared of the unknown” in Perth and “scared of the dark”৷ অর্থাৎ গাব্বার বাউন্স, ওয়াকার অপরিচিত পিচ এবং ওভালের অন্ধকার নিয়ে ভারতীয় দলের সমালোচনা করা হয়েছে৷ অস্ট্রেলিয়ান সাংবাদিক রিচার্ড হিন্দস ট্যাবলয়েডের এই ফটোগ্রাফ টুইটারে শেয়ার করেছেন৷ সেখানে পরিষ্কার লেখা রয়েছে চার টেস্টের সিরিজের ভেন্যু নিয়ে ভারতীয় দল কতটা ভীত৷ কারণ সিরিজ শুরু আগে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া অ্যাডিলেড ওভালে ডে-নাইট টেস্ট করতে চেয়ছিল৷ কিন্তু বিসিসিআই তাতে রাজি হয়নি৷ মুলত বিরাটের আপত্তিতেই ভারতের বিরুদ্ধে ডে-নাইট টেস্টের আয়োজনের ইচ্ছেপূরণ হয়নি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া৷ সেই কারণে টেস্টের লড়াই শুরুর আগে বিরাটদের এভাবে কটাক্ষ করা হয়েছে৷

তবে এবারের অস্ট্রেলিয়া সফরে ভারতীয় দলকে ‘আন্ডারডগ’ নয় বরং অ্যাডভান্টেজ হিসেবে দেখছেন প্রাক্তন অজি তারকা৷ দুরন্ত ফর্মে থাকা বিরাটের সামনে সিরিজ অটুট রাখার কঠিন লড়াই টিম পেইনের দলের সামনে৷ গতবার অর্থাৎ ২০১৪-১৫ মরশুমে অস্ট্রেলিয়া সফরে চার টেস্টের সিরিজ ০-২ হেরেছিল ভারত৷ দু’টি টেস্ট ড্র করেছিল টিম ইন্ডিয়া৷ দারুণ ব্যাটিং করেছিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা৷ চারটি সেঞ্চুরি-সহ ৬৯২ রান এসেছিল বিরাটের ব্যাট থেকে৷ অজিঙ্ক রাহানে, মুরলী বিজয় ও লোকেশ রাহুলের ব্যাট জবাব দিয়েছিল অজি বোলারদের৷

তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ায় ট্যাবলয়েডের এই ফটোগ্রাফের সমালোচনা করেছেন অনেক অজি ক্রিকেট ফ্যানই৷ এই ধরনের রিপোর্টকে মুর্খামি এবং জঘন্য ট্র্যাডিশন বলেও মন্তব্য করেছেন৷ অথচ এই ট্যাবলয়েডেই প্রাক্তন এক অজি ক্রিকেটার বিরাটের দলকে নিয়ে টিম পেইনদের সতর্ক করেছেন৷ উদারণ হিসেবে তুলে ধরেছেন ২০১৪ বিরাটের দুরন্ত ফর্মকে৷

গত বছর ভারতে এসেছিল অস্ট্রেলিয়া দল৷ ভারতে এসেও ভারতীয় ক্যাপ্টেনকে ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প অফ ক্রিকেট’ বলে ব্যাখ্যা করা হয়েছিল৷ বেঙ্গালুরু টেস্টে স্টিভ স্মিথের ব্রেন ফেডের পর উত্তপ্ত হয়ে ওঠেছিল দুই শিবির৷ এবার অজি নেতৃত্বে নেই স্মিথ৷ নেই বাঁ-হাতি আক্রমণাত্মক ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারও৷ তার পরও বিরাটদের কটাক্ষ করার সাহস দেখাচ্ছে অজি মিডিয়া৷ উত্তর দেবে বাইশ গজ৷