লন্ডন: জো ডেনলি, বেন স্টোকস ও জোস বাটলারের প্রতিরোধ ভেঙে তৃতীয় দিনের শেষে ইংল্যান্ড ইনিংসে দাঁড়ি টেনে দেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া৷ তবে লেজ ছাঁটতে একটু দেরি হয়ে যায় অজিদের৷ ইংল্যান্ড তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছিল তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ৩১৩ রান তুলে৷ চতুর্থ দিনে তার পর থেকে খেলা শুরু করে মাত্র ২৭ বল স্থায়ী হয় ব্রিটিশদের ইনিংস৷

ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে অল-আউট হয়ে যায় ৩২৯ রানে৷ ফলে প্রথম ইনিংসের ৬৯ রানের লিড মিলিয়ে অস্ট্রেলিয়ার থেকে ইংল্যান্ড এগিয়ে থাকে ৩৯৮ রানে৷ সুতরাং ওভাল টেস্টে জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার সামনে লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ৩৯৯ রানের৷ উল্লেখ্য, প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ২৯৪ রানের জবাবে অস্ট্রেলিয়া অল-আউট হয়ে যায় ২২৫ রানে৷

আরও পড়ুন: বাংলাদেশকে হারিয়ে এশিয়া কাপ জিতল ভারত

ইংল্যান্ডের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে অল্পের জন্য শতরান হাতছাড়া করেন ডেনলি৷ তিনি ব্যক্তিগত ৯৪ রানে আউট হয়ে বসেন৷ ২০৬ বলের ইনিংসে তিনি ১৪টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন৷ বেন স্টোকস ব্যক্তিগত হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করলেও নিজের ইনিংসকে আরও বড় করে তুলতে ব্যর্থ হন৷ স্টোকস আউট হন ৬৭ রান করে৷ ১১৫ বলের ইনিংসে স্টোকস ৫টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন৷

বাটলার নিশ্চিত হাফসেঞ্চুরি মাঠে ফেলে আসেন৷ ৬টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৬৩ বলে ৪৭ রান করে আউট হন বাটলার৷ এছাড়া ররি বার্নস ২০, জো রুট ২১, জনি বেয়ারস্টো ১৪, স্যাম কারান ১৭, ক্রিস ওকস ৬, জোফ্রা আর্চার ৩ ও জ্যাক লিচ ৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন৷ স্টুয়ার্ট ব্রড ১২ রান করে অপরাজিত থাকেন৷

আরও পড়ুন: টানা সাতটি ছয় হাঁকালেন নবি-জাদরান, ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবোয়েকে হারাল আফগানিস্তান

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৯ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট নেন নাথন লায়ন৷ ২টি করে উইকেট দখল করেন প্যাট কামিন্স, পিটার সিডল ও মিচেল মার্শ৷