লন্ডন: বেন স্টোকসের শতরানে অ্যাসেজের দ্বিতীয় টেস্টে নিজেদের অবস্থান মজবুত করে ইংল্যান্ড৷ তবে লর্ডসে শেষ দিনে খেলা উত্তেজক করে তুলতে অস্ট্রেলিয়ার সামনে চ্যালেঞ্জিং টার্গেট ছুঁড়ে দেয় ব্রিটিশরা৷

আরও পড়ুন: অর্জুন প্রাপকের তালিকা থেকে বাদ পড়ে বিস্ফোরক প্রণয়

প্রথম ইনিংসের ৮ রানের সংক্ষিপ্ত ব্যবধানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় দফায় ব্যাট করতে নামা ইংল্যান্ড ৭১ ওভারে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ২৫৮ রান তুলে ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দেয়৷ অর্থাৎ জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার সামনে লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ২৬৭ রানের৷ নির্ধারিত সময় অনুযায়ী শেষ দিনের খেলা এখনও ৪৮ ওভার বাকি৷ পরিস্থিতিত অনুকূল থাকলে আম্পায়াররা দিনের খেলা আরও কিছুটা দীর্ঘায়িত করতে পারেন৷ সুতরাং ওয়ান ডে’র ঢং’য়ে ব্যাট করলে লর্ডসে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না৷ কেননা জিততে হলে ওভার পিছু ৫.৫৬ রান তুলতে হবে অজিদের৷

আরও পড়ুন: করুণারত্নের অধিনায়কোচিত শতরানে সিরিজে এগোল শ্রীলঙ্কা

ইংল্যান্ডের ২৫৮ রানের জবাবে লর্ডসে অস্ট্রেলিয়া তাদের প্রথম ইনিংস শেষ করে ২৫০ রানে৷ দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ড চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ৯৬ রান তুলে৷ স্টোকস ১৬ ও বাটলার ১০ রানে অপরাজিত ছিলেন৷ তার পর থেকে খেলতে নেমে পঞ্চম দিনে বাটলার আউট হন ৩১ রান করে৷ স্টোকস অপরাজিত থাকেন ব্যক্তিগত ১১৫ রানে৷ ১৬৫ বলের ইনিংসে তিনি ১১টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন৷ শেষবেলায় জনি বেয়ারস্টো ৩৭ বলে ৩০ রানের আগ্রাসী ইনিংস খেলে নটআউট থাকেন৷

আরও পড়ুন: শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়াকে আটকে দিল ভারত

দ্বিতীয় ইনিংসে প্যাট কামিন্স ৩৫ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট নেন৷ তিনি ফিরিয়ে দেন জেসন রয়, জো রুট ও জোস বাটলারকে৷ ররি বার্নস ও জো ডেনলিকে ফিরিয়ে দেন পিটার সিডল৷ দলের হয়ে সব থেকে বেশি ২৬ ওভার হাত ঘুরিয়েও উইকেট তুলতে পারেননি নাথন লায়ন৷